পার্বত্যনিউজে সংবাদ প্রকাশের পর প্রশাসনের জরুরি উদ্যোগ

fec-image

রাঙামাটির লংগদু উপজেলার গাউসপুর সেতুর ভঙ্গুরদশা নিয়ে পার্বত্যনিউজে ‘ব্রিজ নামের মরণ ফাঁদ’ শিরোনামে মঙ্গলবার সংবাদ প্রকাশের পর উপজেলা প্রশাসন এইবার নড়ে-চড়ে বসেছে। সংবাদ প্রকাশের ২৪ ঘন্টা না পেরোতেই উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাইনুল আবেদীনসহ উপজেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা মঙ্গলবার (২১ জুলাই) বিকেলে গাউসপুর সেতুটি পরিদর্শন করেন এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেন।

পরিদর্শন শেষে প্রশাসন সকলের সম্মতিক্রমে সেতুটি নিয়ে যুগপযোগী কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। সিদ্ধান্তগুলো হলো-
১. বিকল্প ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত এই ব্রিজের উপর দিয়ে শুধুমাত্র পায়ে হেঁটে পারাপার হওয়া যাবে, কোনো মোটরসাইকেল চালিয়ে পার হওয়া যাবে না। ২. অতিদ্রুত ২-১ দিনের মধ্যে আপদকালীন সময়ের জন্য মোটরসাইকেল পারাপারের উদ্দেশ্যে কয়েকটি নৌকার সাহায্যে অস্থায়ী ফেরীর ব্যবস্থা করা হবে। ৩. অত্যন্ত দ্রুততার সাথে বিকল্প বাঁশ-কাঠের সেতু তৈরীর ব্যবস্থা করা হবে। তখন আর এই সেতুতে হেঁটে পার হওয়া যাবে না। সেতুটি সম্পূর্ণভাবে বন্ধ থাকবে। ৪. যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে নতুন ব্রিজ নির্মাণ সংক্রান্ত প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছে। আশা করা যায়, খুব দ্রুততম সময়ে নতুন ব্রিজ এর নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

বিকল্প ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত এলাকাবাসীসহ সকলকে এই সেতুতে হেঁটে পারাপার হওয়ার সময় অত্যন্ত সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে।

লংগদু উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাইনুল আবেদীন সেতুটির বিষয়ে সিদ্ধান্তের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা যত দ্রুত সম্ভব গাউসপুর এলাকায় একটি নতুন সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে। আর এর মধ্যে নতুন সেতু নির্মাণ না হওয়া পর্যন্ত সাময়িকভাবে সেতুটি দিয়ে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে উপজেলা প্রশাসন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − 4 =

আরও পড়ুন