সালাম কিংবা নমস্কার জানান,করমর্দন নয়: সালমান খান

fec-image

বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়ানো মরণঘাতী করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে করমর্দন না করে ভারতীয় রীতিতে নমস্কার জানানো নিয়ে ইদানিং পশ্চিমা বিশ্ব থেকে খবর আসছে। এবার উপমহাদেশের জনপ্রিয় সুপারস্টার সালমান খানও পরামর্শ দিলেন নমস্কার বা সালাম জানানোর।

পরস্পরের সঙ্গে সাক্ষাৎ হলে আমরা করমর্দনের মাধ্যমে বা কোলাকুলির মধ্য দিয়ে হৃদয়ের উষ্ণতা পৌছে দিই একজন থেকে আরেক জনে। কিন্তু এখন শুধু উষ্ণতা নয়, একজন থেকে আরেক জনে ভাইরাসও পৌঁছে যাওয়ার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। তাইতো করমর্দন থেকে বিরত থাকতে পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক থেকে শুরু করে পশ্চিমা বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রনায়কও।

এবার করমর্দন ও কোলাকুলি কিছুদিনের জন্য স্থগিত রাখতে পরামর্শ দিলেন বলিউডের ‘ভাইজান’। এর পরিবর্তে তিনি নমস্কার বা সালাম জানাতে পরামর্শ দিয়েছেন। এমনকি ভারতীয় সভ্যতায় যে করমর্দন ব্যাপারটা ঐতিহ্যবাহী নয়, বরং নমস্কার ও সালাম জানানোই ঐতিহ্য, সেকথাও স্মরণ করিয়েছেন ‘দাবাং’খ্যাত তারকা।

সম্প্রতি সালমান খান তার ইনস্টাগ্রামে জিমনেসিয়ামে তোলা একটি ছবি শেয়ার করে লেখেন, ‘নমস্কার! আমাদের সভ্যতায় ‘নমস্তে’ এবং ‘সালাম’ প্রচলিত। যখন করোনা ভাইরাস খতম হয়ে যাবে, তখন আবার হাত মেলাবেন ও কোলাকুলি করবেন।’

দিন কয়েক আগেই বলিউডের প্রবীণ অভিনেতা অনুপম খের করোনা সংক্রমণ এড়ানোর জন্য করজোড়ে অভিবাদন জানানোর পরামর্শ দিয়েছিলেন। এবার খোদ সালমান খানও সেই পথে হাঁটার পরামর্শ দিলেন ভক্তদের।

ভারতীয় উপমহাদেশে হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ ও জৈন সম্প্রদায় করজোড়ে নমস্কার জানিয়ে থাকেন। তেমনি মুসলিমদের মধ্যে সালাম কিংবা আদাব বলে অভিবাদন করার প্রথা রয়েছে।

এই দুই ক্ষেত্রেই অভিবাদন জানানোর জন্য বিপরীত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসতে হয়ে না। দূর থেকেই জানানো যায়। অপরদিকে, পাশ্চাত্যের অভিবাদন পদ্ধতিতে সাধারণত করমর্দন, কোলাকুলি কিংবা চুম্বন প্রচলিত। আর করোনা সংক্রমণ এড়ানোর জন্য এই তিনটি পদ্ধতিকেই এড়ানোর পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

ফ্রান্স সরকার ইতিমধ্যেই চুম্বনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। জার্মান চ্যান্সেলর এঞ্জেলা মার্কেল, ইজরাইলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুসহ অনেকেই করমর্দন না করে নমস্কার জানানোর পরামর্শ দিয়েছেন।

তাই ভারতীয় পুরনো ঐতিহ্যে ফিরে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন সালমান খান। এই সচেতন বার্তার মধ্য দিয়েও যে বলিউডের ভাইজান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার ইঙ্গিত দিয়েছেন, সেটাও বলাই বাহুল্য।

গোটা বিশ্বই এখন করোনা ভাইরাসের কারণে আতঙ্কিত। হলিউডে একের পর এক সিনেমা মুক্তির তারিখ পিছিয়েছে, বন্ধ হয়েছে অনেক শুটিং। তার সঙ্গে বলিউডেও ছড়িয়েছে করোনা আতঙ্ক। দীপিকা পাড়ুকোন ইতোমধ্যে বাতিল করেছেন তার প্যারিস সফর, যোগ দিচ্ছেন না এবারের প্যারিস ফ্যাশন উইকে। অনেক তারকাই করোনা সংক্রমণ এড়িয়ে চলার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন সামাজিক মাধ্যমে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + 7 =

আরও পড়ুন