সিঙ্গাপুরকে ২-১ গোলে হারিয়ে দারুণ জয় বাংলাদেশের

fec-image

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৭ এশিয়ান চ্যাম্পিয়শিপের বাছাই পর্বের ম্যাচ যখন ড্রয়ের পথে যাচ্ছিল ঠিক তখন জয়সূচক গোল পেয়ে যায় বাংলাদেশ। শেষ মুহূর্তের লক্ষ্যভেদে সিঙ্গাপুরকে হারিয়ে দারুণ জয় আদায় করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। ই গ্রুপের খেলায় ২-১ গোলে হারিয়েছে সিঙ্গাপুরকে।

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বুধবার ম্যাচের শুরু থেকে ছিল বাংলাদেশের আধিপত্য। ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে সিঙ্গাপুরের গোলকিপার আইজ্যাক লি বাধা হয়ে না দাঁড়ালে এগিয়ে যেতে পারতো স্বাগতিকরা। ফরোয়ার্ড নাজিম উদ্দিনের শট আটকে যায় প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের গায়ে।

অবশ্য ১০ মিনিটেই সাফল্য তুলে নেয় বাংলাদেশের যুবারা। বক্সের বাইরে থেকে নাজিম উদ্দিন ক্রস করেছিলেন বক্সে থাকা মিরাজুল ইসলামের দিকে। নাজিমের সেই ক্রস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালে বল জড়ান সিঙ্গাপুর ডিফেন্ডার ব্রেয়ডেন গোহ।

১৫ মিনিটে আবার সুযোগ আসে বাংলাদেশের সামনে। ডানপ্রান্ত থেকে মিরাজুলের কোনাকুনি শট ঠেকান প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক।

২০ মিনিটে অল্পের জন্য রক্ষা বাংলাদেশের। সিঙ্গাপুরের মিডফিল্ডার জোনান টানের কাটব্যাক বাংলাদেশ অধিনায়ক ইমরান খানের পায়ে লেগে পোস্টে ঢোকার মুখে হেডে বিপদমুক্ত করেন সিরাজুল ইসলাম রানা।

২৬ মিনিটে মিরাজুলের বাঁকানো ফ্রি-কিক অল্পের জন্য খুঁজে পায়নি জাল। পরের মিনিটের মিরাজের আরেকটি শট ফেরান সিঙ্গাপুরের গোলকিপার।

বাংলাদেশের আক্রমণ ঠেকিয়ে প্রতি আক্রমণে পরের মিনিটে সমতায় ফেরে সিঙ্গাপুর। রাসুল রামলির পাস থেকে ২৮ মিনিটে মুহাম্মদ শাইজোয়ানের দূরপাল্লার শটে হার মানেন বাংলাদেশের গোলকিপার সোহান।

বিরতির পরও লাল সবুজ দলের দাপট চলতে থাকে। তবে কিছুতেই ব্যবধান বাড়ানো যাচ্ছিল না। একের পর সুযোগ এলেও গোল হচ্ছিল না।

যোগ করা সময়ের শেষের দিকে অবশেষে জয়সূচক গোলটি আসে। রাতুলের লম্বা থ্রো ইন ক্লিয়ার করতে হেড করেছিলেন সিঙ্গাপুরের এক খেলোয়াড়। কিন্তু তার ব্যাকহেড গোলকিপার আইজ্যাক লির শুরু ধরলেও পরে হাত ফসকে জালে জড়ায়। শেষ পর্যন্ত এই গোলেই নিশ্চিত হয় পল স্মলির দলের ৩ পয়েন্ট পাওয়া।

আগামী শুক্রবার ভুটানের বিপক্ষে লড়বে পল স্মলির দল।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × one =

আরও পড়ুন