১০ বিলিয়ন ডাউনলোডের রেকর্ড গড়লো জিমেইল

fec-image

চিঠির যুগ পার হয়েছি আপরা কয়েক দশক আগেই। এরপর নানান মাধ্যম এসেছে তথ্য এবং গুরুত্বপূর্ণ বার্তা আদান প্রদানের জন্য। বর্তমানে সবচেয়ে নিরাপদ মাধ্যম হচ্ছে ই-মেইল। যার মধ্যে গুগলের জিমেইল আরও বেশি সহজ করেছে জীবন। জিমেইল বর্তমানে তথ্য আদান প্রদানের সবচেয়ে নিরাপদ মাধ্যমে পরিণত হয়েছে।

অফিসিয়াল কিংবা ব্যক্তিগত তথ্য আদান প্রদানে এখন সবাই ব্যবহার করছেন জিমেইল। গুগল একের পর এক ফিচার যুক্ত করে জিমেইলকে আরও বেশি জনপ্রিয় করে তুলেছে এরইমধ্যে। ২০০৪ সালের এপ্রিলে লঞ্চ হওয়ার পর থেকে গুগলের ইমেইল সার্ভিস জিমেইল অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। পরবর্তীতে অ্যাপ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করার পরে জিমেইলে আরও ফিচার যোগ করতে থাকে গুগল।

এবার চতুর্থ কোনো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ হিসেবে ১০ বিলিয়ন ডাউনলোডের লক্ষ্যমাত্রা ছাপিয়ে গেল জিমেইল। গুগল প্লে স্টোরের গুগল প্লে সার্ভিস, ইউটিউব এবং গুগল ম্যাপস নামের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তিনটি এর আগে ১০ বিলিয়ন করে ইনস্টল হয়েছে। এবার সেই তালিকায় চতুর্থ অবস্থানে যুক্ত হলো জিমেইল।

সর্বপ্রথম জিমেইল অ্যাপের ১০ বিলিয়ন প্লাস ডাউনলোড হওয়ার বিষয়টি চিহ্নিত করে প্রযুক্তি বিষয়ক সংবাদমাধ্যম অ্যান্ড্রয়েড পুলিশ। সেই রিপোর্টে পরিসংখ্যান দিয়ে উল্লেখ করা হয়েছে কীভাবে গুগলের একাধিক সার্ভিস এক এক করে প্লে স্টোর থেকে ১০ বিলিয়নের বেশি ডাউনলোড হয়েছে।

বাজারে টিকে থাকতে গুগল গত দুই বছর ঝড়ের গতিতে একের পর এক ফিচার যুক্ত করেছে সাইটটিতে। আধুনিকতায় মুড়ে ফেলছে জিমেইলের আপাদমস্তক। সম্প্রতি জিমেইলে একাধিক আকর্ষণীয় ফিচার যোগ হয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে আনডু সেন্ড নামের একটি ফিচার।

যা নির্দিষ্ট সময় পর ব্যবহারকারীকে কোনো ইমেইল রিকল করতে দেয়। এখন ৫ সেকেন্ড, ১০ সেকেন্ড এবং ৩০ সেকেন্ডের টাইম ফ্রেমে পাঠিয়ে দেওয়া একটি ইমেইল আনডু করা যায়। এর আগে ভুলবশত কোনো মেইল কাউকে পাঠিয়ে দিলে তা আর আনডু করার সুযোগ ছিল না। সম্প্রতি লেটেস্ট এই ফিচারটিই হাজির হয়েছে জনপ্রিয় এই ইমেইল সার্ভিসে।

নতুন আনডু সেন্ড মেসেজ ফিচারটি জিমেইলের ওয়েব এবং মোবাইল অ্যাপ দুই মাধ্যমেই নিয়ে আসা হয়েছে। জিমেইলের আরও একটি আপডেট হলো, গুগল চ্যাট। এই অ্যাপের মধ্যে চ্যাট করার অপশনও যুক্ত হয়েছে। এর সাহায্যে ব্যবহারকারীরা ১:১ অডিও এবং ভিডিও কল করতে পারছেন।

মূলত মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য নিয়ে আসা এই ফিচারটি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস দুই মাধ্যমের জন্যই রিলিজ করা হয়েছে। এই কলগুলো শুধুমাত্র চ্যাট তালিকায় উপলব্ধ স্বতন্ত্র ব্যবহারকারীদের সঙ্গে করা যেতে পারে। এমনকি মিসড কল এবং অনগোয়িং কলের যাবতীয় খুঁটিনাটি দেখেও নেওয়া যাবে জিমেইলের চ্যাট রস্টার থেকে।

সূত্র: এনডিটিভি গ্যাজেট

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 4 =

আরও পড়ুন