এবার অস্ট্রেলিয়াকে হারালো পাকিস্তান


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:
ফখর জামানের ব্যাটে এবং শাহিন আফ্রিদির বোলিং দিয়ে এবার অস্ট্রেলিয়াকে হারালো পাকিস্তান। জিম্বাবুয়েতে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজের ৫ম ম্যাচে ফিঞ্চ বাহিনীকে ৪৫ রানে হারিয়ে ফাইনালের রিহার্সেল করে নিলো সরফরাজের দল।

বৃহস্পতিবার (৫ জুলাই) হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচের শুরুতে টস জিতে প্রতিপক্ষ পাকিস্তানকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় অজিরা। ফলে আগে ব্যাট করে মারকুটে ওপেনার ফখর জামানের অনবদ্য ৭৩ রানের সুবাদে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে সরফরাজ বাহিনী।

৪২ বল মোকাবেলা করে ৯টি বাউন্ডারি এবং তিনটি বিশাল ছক্কার মার মেরে ওই রান করেন পাক ওপেনার। যদিও শুরুতেই দলীয় মাত্র ৮ রানে আরেক ওপেনার হারিস সোহেলকে (০) ফিরিয়ে দিয়ে টস জয়ের আনন্দে মাতে অজিরা।

কিন্তু পরবর্তিতে ফখর জামানের ব্যাটিং তাণ্ডব এবং হুসাইন তালাতের ২৫ বলে ৩০, সরফরাজের ১৩ বলে ১৪, শোয়েব মালিকের ১৫ বলে ২৭ ও আসিফ আলির অপরাজিত ১৮ বলে ৩৭ রানের ঝোড়ো ইনিংসের কল্যাণে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়তে সক্ষম হয় পাকিস্তান।

এ ইনিংসে অজি বোলারদের মধ্যে সফল ছিলেন অ্যান্ড্রু টাই। ৩৫ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট ঝুলিতে পোরেন তিনি। এছাড়া রিচার্ডসন ৪৩ রানে ২টি এবং স্টইনিস ও ম্যাক্সওয়েল ১টি করে উইকেট লাভ করেন।

জবাবে ১৯৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পাক পেসারদের তোপের মুখে পড়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে অজিরা। ব্যাট হাতে টপ ও মিডল অর্ডারের কেউই তেমন সুবিধা করতে না পারায় শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রনেই থেমে যায় অস্ট্রেলিয়া। ফলে ফাইনালের রিহার্সেল ম্যাচে ৪৫ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পাকিস্তান।

অজিদের পক্ষে এদিন সর্বোচ্চ ৩৭ রান করে অপরাজিত থাকেন উইকেটকিপার অ্যালেক্স ক্যারে। এছাড়া শর্ট ২৮, ফিঞ্চ ১৬, স্টইনিস ১৬, টাই ১২, আগার ১১ ও ম্যাক্সওয়েল ১০ রান করেন। পাক বোলারদের মধ্যে এ ম্যাচে সবচেয়ে আলো ছড়ান তরুণ পেসার শাহিন আফ্রিদি। মাত্র ২টি ম্যাচ খেলা এ পেসার ৩৭ রান দিয়ে দখল করেন ৩টি উইকেট। এছাড়া আমির, ফাহিম, শাদাব ও উসমান প্রত্যেকে ১টি করে উইকেট লাভ করেন।

ম্যাচ সেরা হন ফখর জামান।

এই দু’দলের মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচ আগামী ৮ জুলাই দুপুর ২টায় হারারে’তে অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + six =

আরও পড়ুন