আরাকান আর্মির সাথে যুদ্ধে পশ্চিম মিয়ানমারে পুলিশ, সৈন্য নিহত

fec-image

উত্তর রাখাইন রাজ্যের রতেদং ও বুধিদং টাউনশিপে রোববার ও সোমবার আরাকান আর্মির সাথে সংঘর্ষে মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর অফিসার, সৈন্য ও অন্য আরো কিছু লোক নিহত হয়েছে।

রোববার রথেদং টাউনশিপের ইন দিন-তুগপিয়ো রাস্তায় পাহারারত সীমান্ত রক্ষা পুলিশের ওপর গুপ্ত হামলা চালায় আরাকান আর্মি। তারা এক পুলিশ অফিসারকে হত্যা ও আরো কয়েকজনকে আহত করে। মিয়ানমার সামরিক মুখপাত্র মেজর জেনারেল জাও মিন তুন এ তথ্য জানান।

তিনি ইরাবতীকে বলেন, আরাকান আর্মি তাদের ওপর গুপ্ত হামলা চালিয়েছিল। তারা সকাল ১০টা-১১টার দিকে হামলা চালায়। দ্বিতীয় দফা চলায় বেলা আড়াইটার দিকে।

তিনি বলেন, সোমবার ইন দিন গ্রামে সৈন্য ও সরকারি কর্মকর্তারা হামলার মুখে পড়ে।

মেজর জেনারেল জাও মিন তুন বলেন, মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর কয়েকজন সৈন্য মারা গেছে, কয়েকজন আহত হয়েছে। পুলিশ অফিসার ও একজন অভিবাসন কর্মকর্তাও মারা গেছে।

সামরিক বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীর কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে। মিয়ানমার সামরিক বাহিনী এখন নিরাপত্তা অভিযান চালাতে যাচ্ছে।

সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র বলেন, আরাকান আর্মির সদস্যরা বুধিদং ও রথেদং এলাকার কোথাও মোতায়েন রয়েছে। আমরা পাল্টা অভিযান চালানোর কথা ঘোষণা করছি।

তিনি বলেন, ইন দিন গ্রামের পশ্চিম দিকে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা) আগে উপস্থিতি ছিল।

রথেদংয়ের অধিবাসী উ মং স উইন বলেন, একজন অভিবাসন কর্মকর্তাসহ অন্তত ১০ জন সামরিক ও পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছে।

নিরাপত্তা বাহিনীর ওই এলাকায় আদমশুমারি করার সময় ওই অভিবাসন কর্মকর্তা সেখানে ছিলেন।

উইন বলেন, সংঘর্ষ কয়েক ঘণ্টা স্থায়ী হয়। তিনি বলেন, সেখানে প্রায় ১০০ পুলিশ ও ৩০০ সৈন্য ছিল। আর আরাকান আর্মির সদস্য ছিল প্রায় ৬০০।

তিনি বলেন, আরো সংঘর্ষের আশঙ্কায় অনেক লোক এলাকা ছেড়ে চলে গেছে।

পুলিশের একটি সূত্র ইরাবতীকে জানায় রোববারের গুপ্ত হামলায় পুলিশের একজন মেজরও নিহত হয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 4 =

আরও পড়ুন