কক্সবাজারে জামায়াত নেতার জানাযায় লাখো শোকার্ত মানুষের উপস্থিতি

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার:

লাখো শোকার্ত মানুষের উপস্থিতিতে উনুষ্ঠিত হয়েছে কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও কক্সবাজার জেলা জামায়াতের সেক্রেটারী জিএম রহিমুল্লাহর প্রথম নামাজে জানাযা।

বুধবার(২১ নভেম্বর)সকাল বেলা ১১টার দিকে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে তাঁর জানাযা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

বেলা আড়াইটায় দ্বিতীয় জানাযা নিজ গ্রাম সদরের ভারুয়াখালীতে অনুষ্ঠিত হবে। সকাল সাড়ে দশটায় জানাযার সময় থাকলেও ২০ মিনিট পরে জানাজা সম্পন্ন হয়।

ইমামতি করেন জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষনেতা মাওলানা আব্দুল হালিম।

জননেতা জিএম রহিমুল্লাহর জানাযাপূর্ব সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার আদরের ভাই জিএম রহিমুল্লাহর মৃত্যুর সংবাদ বিশ্বাস হয়নি। কিভাবে তিনি এত অল্প সময়ে চলে যাবেন ভাবিনি। জানাযায় বিশাল এই সমাবেশ তার সততা, জনপ্রিয়তার বড় প্রমাণ।

মাওলানা আবদুল হালিম বলেন, আপনাদের জিএম রহিমুল্লাহ ছিলেন ছোট মানুষ। হয়ে গেলেন জাতীয় নেতা। তিনি কক্সবাজারবাসীর গৌরব ছিলেন। তার মতো যোগ্যতা সম্পন্ন মানুষ কমই মেলে।

জামায়াত নেতার জানাযায় দল মত নির্বিশেষে সব শ্রেণীর মানুষ অংশ গ্রহণ করে। জানাযার নির্ধারিত স্থান কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ হলে তা দশটার আগেই কানায়-কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। পার্শ্ববর্তী কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়াম, পৌরপ্রিপ্যারেটরী উচ্চবিদ্যালয় মাঠ, আশপাশের সড়ক উপসড়কে শোকাহত জনতা অবস্থান নেয়। যে যেখানে ছিল সেখান থেকেই জানাযার নামাজে অংশ নেয়।

এতে অংশ নেন, এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল, সাবেক এমপি লুৎফুর রহমান কাজল, কউক চেয়ারম্যান লে. কর্নেল ফুরকান আহমদ, কক্সবাজার পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম মহানগর আমীর মুহাম্মদ শাহজাহানসহ বিভিন্ন দলমত ও শ্রেণী পেশার লাখো শোকার্ত মানুষ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × 3 =

আরও পড়ুন