কাঁটাতারের বেড়া নিয়ে সংশয় নেই; স্থানীয়দের পালংখালী ইউপি চেয়ারম্যান

fec-image

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের কাঁটাতারের বেড়া নিয়ে ক্যাম্প অভ্যন্তরে থাকা স্থানীয়দের সংশয় ও দুশ্চিন্তা না করতে বলেছেন পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী।

তিনি বলেন,”রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অতি নিরাপত্তা জোরদারের লক্ষ্যে সম্প্রতি সরকারের উদ্যোগ নেওয়া কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। স্থানীয়দের পক্ষে আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দ্বারা সরকারের নিকট দাবি রেখেছি কয়েকটি। তন্মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো ১. সেখানে থাকা স্থানীয়দের জন্য আলাদা পরিচয় পত্র (চলাচলের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয়) ও ২. রোহিঙ্গাদের ন্যায় তাদের জন্যেও ত্রাণের ব্যবস্থা করা।”

এদিকে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ নিয়ে শঙ্কিত ক্যাম্প এরিয়ায় থাকা স্থানীয়রা। কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের কাজটি সম্পন্ন হলে পালংখালী ইউনিয়নের কতিপয় মোছারখোলা, জামতলী, তাজনিমারখোলা, ঘোনারপাড়া, জুমেরছড়া ও পশ্চিম বালুখালী সহ ক্যাম্পের আওতায় থাকা আরও বিভিন্ন এলাকার স্থানীয় লোকজন দূর্ভোগে পড়তে পারে বলে নিজেরা মনে করছেন।

তাদের দাবি, রোহিঙ্গাদের শৃঙ্খলায় ফেরাতে, তাদের অবাধ বিচরণ ও চলাচল ঠেকাতে এরকম অভূতপূর্ব উদ্যোগ নেওয়ার কারণে স্থানীয় মানুষের চলাচলে সমস্যা হতে পারে। সাধারণ জনতার স্বাভাবিক জীবন-যাপনে দুর্ভিক্ষ নেমে আসবে। কেউ কেউ বলছে রোহিঙ্গাদের মতো বন্দি হয়ে থাকতে হবে আমাদের।

এরকম বহু নানাবিধ প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে সাধারণ জনগণের মাথায়। সহজে বুঝে উঠতে পারছে না তারা। ভাবছে স্বাধীনতাহীনতায় ভুগতে হবে। পূর্বের মতো পরিবেশ ও সুযোগ-সুবিধা আর থাকবেনা বলে মনে করছেন। এনিয়ে তাদের মধ্যে গুঞ্জনও সৃষ্টি হচ্ছে। অনেকেই বিষয়টি নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করছে।

উল্লেখ্য, স্থানীয়দের এই সংশয় দূর করতে বিভিন্ন উদ্যোগ হাতে নেওয়া হচ্ছে। সরকার প্রথমে ক্যাম্পে থাকা স্থানীয়দের নিয়ে আগাম কিছু না ভাবলেও সেখানে স্থানীয়দের কয়টি ঘর-বাড়ি ও পরিবার রয়েছে তার লিস্ট ইতিমধ্যে করেছে সংশ্লিষ্টরা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 3 =

আরও পড়ুন