কাউখালীর ৬৯ গৃহহীন-ভূমিহীন পেলো প্রধানমন্ত্রীর উপহার: অনেক ঘরে পৌঁছায়নি বিদ্যুৎ ও নিরাপদ পানি

fec-image

সারাদেশে ৬৬ হাজার ১৮৯ গৃহহীন-ভুমিহীন পরিবারের হাতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘরের চাবি হস্তান্তরের অংশ হিসেবে কাউখালীর ৬৯ পরিবার পেলো কাংখিত ঘর। রোববার (২০ জুন) সকাল সোয়া এগারোটায় ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এসব পরিবারকে ঘরের চাবি বুঝিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী। এ উপলক্ষে সকাল ১০টায় কাউখালী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুন আরা সুলতানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছেলেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী। এতে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এরশাদ সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেলাল উদ্দিন, কাউখালী থানার ওসি মো. শহিদ উল্লাহ পিপিএম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অংপ্রু মারমা, নিংবাইউ মারমা, কলমপতি ইউপি চেয়ারম্যান ক্যজাই মারমা, ঘাগড়া ইউপি চেয়ারম্যান জগদিস চাকমা, বেতবুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান খইচাবাই তালুকদার, ফটিকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ধন কুমার চাকমা। উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

আশ্রয়ন প্রকল্প- ২ এর আওতায় ১ম ও ২য় পর্যায়ে কাউখালী উপজেলার ৪ ইউনিয়নের ৬৯ গৃহহীন পরিবারকে প্রধান মন্ত্রীর পক্ষ থেকে ঘরের চাবি ও আনুসাঙ্গিক দলিল হস্তান্তর করেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী। এর মধ্যে বেতবুনিয়া ইউনিয়নের ২১ (২য় পর্যায়), ফটিকছড়ি ইউনিয়নের ১ম পর্যায়ে ৫ ও দ্বিতীয় পর্যায়ে ৯, ঘাগড়া ইউনিয়নে ৯ (২য় পর্যায়) ও কলমপতি ইউনিয়নের ১ম পর্যায়ে ৫ ও দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০ পরিবারসহ মোট ৬৯ পরিবার কাঙ্খিত ঘরের চাবি বুঝে পায়। তবে অনেকে অভিযোগ করেছেন বুঝিয়ে দেয়া এসব অনেক ঘরের পুরোপুরি কাজ এখনও শেষ হয়নি। নাই পানির ব্যবস্থা ও বিদ্যুৎ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুন আরা সুলতানা জানিয়েছেন, বুঝিয়ে দেয়া ঘরগুলোতে এখনও কিছু কাজ বাকী রয়েছে গেছে। তিনি জানিয়েছেন বিশেষ করে বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহের কাজ পুরোপুনি নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি। এজন্য জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর ও বিদ্যুৎ বিভাগ কাজ করে যাচ্ছে। খোব দ্রুতই এসব কাজ শেষ করতে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − fifteen =

আরও পড়ুন