কুতুবদিয়ায় ১৪ লাইব্রেরীর ধর্মঘটের ডাক

fec-image

কুতুবদিয়ার ১৪ পুস্তক বিক্রেতা নোট গাইড বিক্রির দাবি নিয়ে আগামীকাল সোমবার(২৪ ফেব্রুয়ারি) লাইব্রেরী বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। উপজেলা সদর, বড়ঘোপবাজার, ধুরুংবাজারসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় অন্তত ১৪ টি লাইব্রেরী এ ধর্মঘট পালন করবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক নোট, গাইড বিক্রি বন্ধ রাখার কথা থাকলেও কুতুবদিয়ায় অবাধে বিক্রি হচ্ছেই। বিভিন্ন প্রকাশনার এসব নোট বা গাইড কিনতে ছাত্র-ছাত্রীদের এক প্রকার বাধ্য করা হচ্ছে।

বিশেষ করে কিন্ডার গার্টেন স্কুলগুলোতে নির্ধারিত গাইড কেনা বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এসব গাইড চড়া মূল্যে বিক্রি হলেও প্রশাসন খুব একটা তৎপর নেই। একই ভাবে মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতেও চলে চাপাচাপি।

গাইড বিক্রির প্রতিযোগিতার বাজারে পুস্তক বিক্রেতাদের একটা বড় বকশিস দিয়ে থাকেন প্রকাশকরা। এই বকশিসের একটা অংশ সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের হাতেও চলে যায়। এভাবে চলে নোট গাইডের রমরমা ব্যবসা। এটি টিকিয়ে রাখতে নোট গাইড বিক্রির বিকল্প নাই। তাই আন্দোলন চলছে লাইব্রেরী মালিকদের।

ধূরুং বাজারে এম. হোছাইন লাইব্রেরীর মোহাম্মদ হোছাইন বলেন, সারা দেশের সাথে সংহতি প্রকাশ করে তারা সোমবার সকল লাইব্রেরী বন্ধ রাখবেন। একই সাথে জেলায় মানব বন্ধনে যোগ দেবেন।

একই কথা জানান বড়ঘোপ হাসপাতাল গেইটে বিসমিল্লাহ লাইব্রেরীর তোফাইল আহমদ। তিনি আরো বলেন নোট গাইট বিক্রি করতে না পারলে লাইব্রেরীতে শুধু গল্পের বই আর খাতা কলম বিক্রি করতে হবে। এসব দিয়ে তো পেট চলবেনা। তাই লাইব্রেরী বন্ধই করে দিতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + ten =

আরও পড়ুন