সরকারি নির্দেশনা অমান্য, আইনজীবীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণসহ নানা অভিযোগে

খাগড়াছড়িতে আইনজীবীদের জেলা ম্যাজিস্ট্রেটসহ তিন আদালত বর্জন কর্মসূচী চলছে, বিপাকে বিচারপ্রার্থীরা

fec-image

খাগড়াছড়ি জেলা আইনজীবী সমিতির ঘোষণা অনুযায়ী জেলা ম্যাজিস্ট্রেটসহ তিন আদালত বর্জনের কর্মসূচী পালিত হচ্ছে।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার(১৩ আগস্ট) আইনজীবীরা জেলা প্রশাসনের আদালত সমূহের কার্যক্রমে অংশ নেয়নি। এর ফলে বিপাকে পড়েছে বিচারপ্রার্থীরা

সরকারি নির্দেশনা না মানা, আইনজীবীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং মামলার শুনানীতে অহেতুক গড়িমসি করাসহ নানা অভিযোগ এনে বুধবার খাগড়াছড়ি জেলা আইনজীবী সমিতি আয়োজিত সাধারণ সভায় জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের আদালত অনির্দিষ্টকালের বর্জনের ঘোষণা দেয়া হয়।

তবে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস আইনজীবীদের অভিযোগগুলো অস্বীকার করে বলেন, আইনজীবীদের কোন দাবী-দাওয়া ও আদালত পরিচালনা নিয়ে পরামর্শ থাকলে তারা বলতে পারতেন। কিন্তু তারা কোন আলাপ না করে একতরফাভাবে কোর্ট বন্ধ করার সিদ্ধান্তে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। যেটা আইনজীবী হিসেবে তাদের কাম্য হওয়ার কথা না। আর আমরা যারা বিচার পক্রিয়ার সাথে আছি আমাদেরও কাম্য না।

অপর দিকে খাগড়াছড়ি জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট আশুতোষ বলেন, জেলা প্রশাসক, জেলা ম্যাজিস্টেটও তার কাছে জেলাবাসী ন্যায় বিচার পাচ্ছে না। তিনি পক্ষপাতিত করেন। তাই আমরা বাধ্য হয়ে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে খাগড়াছড়ি জেলায় গত জুন মাস পর্যন্ত ৬৯০ টি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা।

এতে ৩,০০২ টি মামলার বিপরীতে ১৫ লক্ষ ৫১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। তবে অভিযানে কতজনকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে তা জানা যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আইনজীবী, খাগড়াছড়ি, জেলা ম্যাজিস্ট্রেট
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − 1 =

আরও পড়ুন