গর্জনিয়া বাজার সংস্কার কাজের ধীর গতি; সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ

fec-image

কক্সবাজারের রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের বৃহত্তর গর্জনিয়া বাজারে এলজিইডি কর্তৃক ৪৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে চলছে বাজার উন্নয়ন ও সংস্কার কাজ। দীর্ঘ ছয় মাস ধরে চলা এই কাজ ধীর গতিতে চলায় বাজারে আসা ক্রেতা-বিক্রেতা ও জন সাধারণের দুর্ভোগের শেষ নেই। সম্প্রতি বর্ষা কাল শুরু হওয়ায় এই কাজ এখন সম্পূর্ণ করা কঠিন হয়ে পড়েছে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের।

এই জন্য ব্যবসায়ী, সাধারণ মানুষ ও বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা ক্রেতা-বিক্রেতাদের মাঝে কেনাকাটায় যেমন কষ্ট হচ্ছে তেমনি ব্যবসায় লোকসান গুনতে হচ্ছে প্রতি হাট বারে তাদের। এই বিষয়ে জানতে চাইলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার এ প্রতিবেদককে বলেন কাজটি শুরু করার পর মাঝখানে একটু সমস্যা হয়। যখন পুনরায় কাজ শুরু করি তখন বৃষ্টি হওয়াতে কাজ বন্ধ রয়েছে। বৃষ্টি কমার সাথে সাথে দ্রুত গতিতে সম্পন্ন করা হবে এ কাজ।

বাজার ইজারাদার ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মোঃ শাহ আলম বলেন, এ বছর বৃহত্তর এই গর্জনিয়া বাজারটি গেল জুন মাসে ২০১৯ ইং চলিত সনের জন্য ৪৪ লক্ষ ৮৪ হাজার টাকায় বাজার ইজারা নেওয়া হয়। কিন্তু বাজারটি উন্নয়ন ও সংস্কার কাজ ধীর গতিতে চলায় দূর-দুরান্ত থেকে আসা এবং স্থানীয় ব্যবসায়ীরা নির্ধারিত জায়গায় বসে বেচা বিক্রি করতে না পারায় প্রতি হাট বারে টোল আদায় করে যে পরিমাণ টাকা উঠার কথা সেই পরিমাণ টাকা তোলা সম্ভব না হওয়ায় প্রতি বাজারে লোকসান গুনতে হচ্ছে।

তবে বাজারটি উন্নয়ন হওয়ায় স্থানীয়রা বর্তমান সরকারের প্রশংসার পাশাপাশি সবাই খুশি বলে জানান, আলম সওদাগর খোকন সওদাগরসহ অনেক ব্যবসায়ী। তাদের মতে কচ্ছপ গতিতে কাজ চলায় এবং বর্ষা মৌসুম আসায় ছোট- বড় ব্যবসায়ী, সাধারণ মানুষ ও ক্রেতা-বিক্রেতাদের দুর্ভোগের শেষ নেই। তাই ইজারাদার, স্থানীয় ব্যবসায়ীরা গর্জনিয়া বাজারের উন্নয়ন ও সংস্কার কাজ দ্রুত গতিতে শেষ করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন, গর্জনিয়া বাজার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − sixteen =

আরও পড়ুন