ঘুমধুম সীমান্তে ৪২ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার, আটক ১ রোহিঙ্গা

fec-image

ঘুমধুম সীমান্তে ৪২ ভরি স্বর্ণসহ এক রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করছে থানা পুলিশ। গ্রেফতার হওয়া এ রোহিঙ্গার নাম মো. ইউনুছ। সে উখিয়া টিভি টাওয়ার সংলগ্ন কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প-৭ এর ব্লক-ই, হেড মাঝি আজিম উল্লাহ, শেড মাঝি সালেহ আহমদ এর বস্তির আশ্রিত রোহিঙ্গা মৃত নুর হোসেনের ছেলে।

পুলিশ জানান, বান্দরবান পুলিশ সুপার জেরিন আক্তার এবং নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন এর দিক নির্দেশনায়, ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. দেলোয়ার হোসেন এর সার্বিক তত্বাবধান ও নেতৃত্বে অভিযান এ চালান। তারা ঘুমধুম সীমান্তের বেতবুনিয়া বাজার এলাকা থেকে ৪২ ভরি ১০ আনা ওজনের এ স্বর্ণ বার উদ্ধার সহ এক রোহিঙ্গা চোরাকারবারিকে আটক করেছে।

সোমবার (২১ জুন) দিবাগত সাড়ে রাত ৯টার দিকে ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মো. মুখলেছুর রহমান সঙ্গীয় এএসআই সাহাব উদ্দিন অভিযান পরিচালনা করে ঘুমধুম ইউনিয়নের বেতবুনিয়া বাজারস্থ আওয়ামী লীগ অফিসের সামনে বেতবুনিয়া-তুমব্রু সড়কের উপর হতে মো. ইউনুস (২৫) নামের এক রোহিঙ্গাকে আটক করে। যার আনুমানিক বাজার মুল্য প্রায় সাড়ে ২৯ লাখ টাকা।

এ সংক্রান্তে গ্রেফতারকৃত আসামি ও তার সহযোগী পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে বলে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন।

তিনি বলেন, এর আগে গত ক’মাস আগে তার নেতৃত্ব থানা পুলিশ সদর ইউনিয়নের আশারতলী সীমান্ত থেকে ২৮ বারে প্রায় ৪শত ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করেছিল স্বর্ণ কারবারীদের কাছ থেকে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আটক, ঘুমধুম, রোহিঙ্গা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + nineteen =

আরও পড়ুন