চকরিয়ায় ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে ২৮ বছরের এক যুবকের বিরুদ্ধে। স্কুল ছুটি শেষে বাড়ি ফেরার পথে রবিবার (২৪ নভেম্বর) বিকেল চারটার দিকে ওই শিশুকে ধরে নিয়ে গিয়ে মুখ চেপে ধর্ষণ করে ওই যুবক। রাত ১১টার দিকে ধর্ষিতা শিশুকে নিয়ে থানায় হাজির হন তার অভিভাবকেরা।

উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী এলাকা বাইঘ্যাঘোনা পাহাড়ি এলাকায় এই ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। ধর্ষিতা শিশুটি সীমান্তবর্তী লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের থানহ্লাই পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শহীদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। রবিবার রাত ১১টার দিকে চকরিয়া থানা হাজির হন ধর্ষিতা শিশুসহ পরিবার সদস্যদের নিয়ে। এ সময় ধর্ষিতা শিশু হাটছিল পা দাবিয়ে।

এ সময় শিশুটি জানায়, রবিবার সকালে প্রতিদিনের মতো স্কুলে যায় সে। বিকেল চারটার দিকে স্কুল ছুটি হলে পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় বাইঘ্যাঘোনা এলাকার মো. জকরিয়া তাকে সড়ক থেকে তুলে পাশের পাহাড়ি এলাকায় নিয়ে যায়। সেখানে তাকে মুখ চেপে ধর্ষণ করে জকরিয়া। এতে তার রক্তাক্ত জখম হয় গোপনাঙ্গে।

শিশু ধর্ষণে জড়িত জকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বাইঘ্যাঘোনা গ্রামের মোহাম্মদ এমদাদের ছেলে।

শিশুটির দাদি জানায়, এ ঘটনার পর শিশুটি বাড়িতে গিয়ে মা-বাবাসহ পরিবার সদস্যদের ঘটনা খুলে বলে। এর পর তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) রেফার করেন।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.হাবিবুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে মামলা রুজু করা হবে। ঘটনায় জড়িত জকরিয়াকে ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 − three =

আরও পড়ুন