জোড়া গোলে নতুন রেকর্ডের পাতায় রোনালদো

fec-image

রেকর্ড ও রোনালদো যেন একে অপরের পরিপূরক। ইউরোপের শীর্ষ লীগ থেকে পাড়ি জমিয়েছেন মরুর দেশ সৌদিতে। কিন্তু রেকর্ড তার পিছু ছাড়েনি। তাড়া করে বেরিয়েছে সর্বত্র। চলে এসেছেন ক্যারিয়ারের সায়াহ্নে। কিন্তু তারপরেও নিত্য নতুন রেকর্ড গড়ে পাঁচবারের ব্যালন ডিঅর জয়ী এই পর্তুগিজ তারকা জানান দিলেন, এখনো ফুরিয়ে যাননি তিনি।

বয়সটা চল্লিশ ছুঁইছুঁই। ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লীগে এমন কিছু নেই যা জয় করেননি তিনি। সৌদিতে পাড়ি জমিয়েছেন দুই মৌসুম আগে। একবার আরব ক্লাব চ্যাম্পিয়ন কাপ ছাড়া দলীয় সাফল্য তেমন একটা ধরা দেয়নি। তবে ব্যক্তিগত সাফল্যের বিচারে রোনালদো এখনো অদ্বিতীয়। তার দল আল নাসের সৌদি প্রো লীগে শিরোপা হারিয়েছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আল হিলালের কাছে। তবে তিনি নিজে গড়েছেন এক অনন্য কীর্তি। সৌদি প্রো লীগের ইতিহাসে এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডটি এখন তার।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে আল ইত্তিহাদের বিপক্ষে মৌসুমে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলতে মাঠে নামে আল নাসের। ইতোমধ্যে আল হিলাল শিরোপা নিশ্চিত করে ফেলায় এই ম্যাচটি ছিল নিয়ম রক্ষার। তবে রোনালদোর সামনে ছিল রেকর্ডের হাতছানি। সৌদি ফুটবল লীগের ইতিহাসে এর আগে এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডটি ছিল আব্দের রাজ্জাক হামদাল্লার। ২০১৮-১৯ মৌসুমে রোনালদোর ক্লাবের হয়েই এই কীর্তি গড়েন বর্তমানে আল ইত্তিহাদের হয়ে খেলা মরক্কোর এই স্ট্রাইকার। তার গোল সংখ্যা ছিল ৩৪। রোনালদো তাকে টপকে করলেন ৩৫ গোল।

এইদিন দলের পক্ষে প্রথম দুইটি গোলই করেন সিআরসেভেন। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে প্রথমবারের মতো বল জালের দেখা পায়। নেপথ্যে নায়ক রোনালদো। প্রথম গোলের পরেই যুগ্মভাবে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়ে যান তিনি। পরবর্তীতে দ্বিতীয়ার্ধের ৬৯ মিনিটের মাথায় করেন আরো একটি গোল। আর এতেই ৩৫ গোল করে অনন্য রেকর্ড গড়ে তোলেন তিনি।

৭৪ মিনিটের মাথায় তাকে বদলি করা যায়। শেষ অব্দি আল-নাসর ৪-২ ব্যবধানে আল ইত্তিহাদের সাথে জয় লাভ করে। এই জয়ের মাধ্যমে ৩৪ ম্যাচে ৮২ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থেকে লিগ শেষ করে আল-নাসর। ১৪ পয়েন্ট বেশি নিয়ে রেকর্ড ১৯ তম শিরোপা জিতে আল হিলাল। ৩৪ ম্যাচ শেষে অপরাজিত থেকে লিগ শেষ করা আল হিলালের পয়েন্ট ৯৬।

২০২৩ সালের জানুয়ারিতে ফ্রি ট্রান্সফারে আল নাসরে যোগ দেন রোনালদো। ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি গোলের মালিক রোনালদো আল-নাসরেও বারবার প্রমাণ করেছেন নিজের গোলের ক্ষুধা। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ক্লাবটির হয়ে ৬৯ ম্যাচে করেছেন ৬৪ গোল। আর চলতি মৌসুমে ৪৪ ম্যাচে রোনালদো গোল করেছেন ৪৪টি।

রেকর্ড ভাঙার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে রোনালদো লিখেছেন, ‘আমি রেকর্ডের পেছনে ছুটি না, রেকর্ডই আমার পেছনে ছোটে।’ চলতি মৌসুমে সিআরসেভেনের সামনে বাকি আর একটি ম্যাচ। সেই ম্যাচে আছে শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা। শুক্রবার রাতে কিং কাপের ফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আল হিলালের মুখোমুখি হবে আল নাসর।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আল নাসর, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, সৌদি প্রো লিগ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন