দীঘিনালায় ইউপি নির্বাচনে দু’জনকে ছয় মাসের স্বশ্রম কারাদণ্ড

fec-image

দীঘিনালায় ইউপি নির্বাচনে বাধা প্রদানের অভিযোগে দুজনকে ছয় মাসের স্বশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। গত রোববার ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ সাজা প্রদান করা হয়। এছাড়া নির্বাচনী গাড়ি ভাংচুর করার অভিযোগে ৭ জনের নামে মামলা করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত রোববার দীঘিনালা উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে নির্বাচন চলাকালীন সময়ে ১নং মেরুং ইউনিয়নে নির্বাচন কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে বড় মেরুং এলাকার আবদুল মান্নানের ছেলে বাবুল মিয়া(২৮) এবং কবাখালী ইউনিয়নের হাচিনসনপুর গ্রামের আবু তাহের এর ছেলে রফিক (৪২) কে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ছয় মাসের স্বশ্রম কারাদণ্ড প্রদান হয়।

এছাড়া কবাখালী ইউনিয়নে নির্বাচনী কাজে ব্যবহৃত গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগে খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার দক্ষিণ গঞ্জ পাড়ার ইউসুফ আলীর ছেলে শরীফ আহম্মেদ বাদী হয়ে ৫নং ওয়ার্ডের মোরগ মার্কার মেম্বার পদপ্রার্থী মো. হানিফ মিয়া (সোহাগ)কে প্রধান আসামি ছয় জনের নাম উল্লেখ করে এবং ১৫০/২০০ জনের নামে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করা হয়। ঘটনার সময় ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে মামলার এজাহারে মো. হানিফ মিয়া ( সোহাগ) পালিয়ে গেলেও অপর আসামীদের আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। অপর আসামীরা হলেন, পূর্ব হাচিনসনপুর গ্রামের আলামিন এর ছেলে মো. মোজাহিদ রাব্বি (২০), জহির হোসেন এর ছেলে মো. রাজিব হোসেন (১৮), ছায়েদ আলীর ছেলে মো. নুরে আলম (২৪), শফিকুল ইসলাম এর ছেলে মো. আরিফুল ইসলাম (২৪) এবং নজরুল ইসলামের ছেলে জামাল হোসেন (৪০)। এছাড়া চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা বাসিন্দা এবং মৃত হাক্বী আব্দুল ওহাব এর ছেলে আবু জাহেদ (৪০)

দীঘিনালা থানার এসআই মিল্টন খন্দকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three − 2 =

আরও পড়ুন