দীঘিনালায় সন্ত্রাসী হামলায় বাঙালি নারী হত্যার ঘটনায় বিক্ষোভ ও সমাবেশ

fec-image

দীঘিনালায় বাবুছড়া সোনামিয়া টিলা ভূমি রক্ষা কমিটির সভাপতি আবদুল মালেকের বাড়ীতে সন্ত্রাসীদের ব্রাশ ফায়ারে মোরশেদা বেগমকে হত্যার প্রতিবাদে, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে, বিক্ষুব্ধ বাঙালীরা।

“দীঘিনালার সর্বস্তরের জনগণ” ব্যানারে া ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানানো হয়।

শনিবার(১৫ আগস্ট) বিকেলে বোয়ালখালী বাজার থেকে শুরু হয় বিক্ষোভ মিছিল। বিক্ষোভ মিছিলটি দীঘিনালা থানা বাজার প্রদক্ষিণ করে বঙ্গবন্ধু চত্ত্বরে গিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

সমাবেশে মো. সাদ্দাম হোসেনের সভাপতিত্বে রাখেন, প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইঞ্জিনিয়ার আবদুল মজিদ।

প্রতিবাদ সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, এসএম মাসুম রানা কমিশনার, নজরুল ইসলাম মাসুদ মনসুর আলম হীরা, তাহেরুল ইসলাম সোহাগ, আল আমিন হাওলাদার, আহাম্মাদুর রহমান, শামীম হোসেন এবং হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা সোনামিয়া টিলা ভূমি রক্ষা কমিটির সভাপতি আবদুল মালেকের বাড়ীতে হামলাসহ গুলি করে মোরশেদা বেগমকে হত্যার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

এসময় বক্তারা উপজাতি সন্ত্রাসী কর্তৃক হামলায় নিহত সকল বাঙালি হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত করে ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

এছাড়া পার্বত্য অঞ্চলে বসবাসরত নিরীহ জনগনের জানমাল রক্ষায়, সকল অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করে বেদখলকৃত সোনামিয়া টিলা সহ সকল বাঙালীরের জমি ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানানো হয়।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার মধ্য রাতে বাবুছড়া গুচ্ছগ্রামে সোনামিয়া টিলা ভূমি রক্ষা কমিটির সভাপতি আবদুল মালেকের বাড়ীতে হামলা চালানো হয়।

স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের ব্রাশ ফায়ারে আবদুল মালেকের স্ত্রী মোরশেদা বেগম গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়, এঘটনায় মালেকের ছেলে আবদুল আহাদ আহত হন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: দীঘিনালা, বাঙ্গালি, বিক্ষোভ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve − 1 =

আরও পড়ুন