দেশে সাক্ষরতার হার ৭৪.৬৬ শতাংশ, বেড়েছে ২২.৮৯ শতাংশ

fec-image

দেশে সাত বছর ও তদূর্ধ্ব বয়সীদের সাক্ষরতার হার ৭৪ দশমিক ৬৬ শতাংশ। ২০১১ সালের আদমশুমারি ও গৃহগণনা অনুযায়ী, এই হার ছিল ৫১ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এই হিসাবে দেশে সাক্ষরতার হার বেড়েছে ২২ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

বুধবার (২৭ জুলাই) জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২ এর প্রাথমিক তথ্যে এ কথা জানানো হয়। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ তথ্য উপস্থাপন করেন জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২১’ প্রকল্প পরিচালক দিলদার হোসেন।

প্রকল্প পরিচালক বলেন, ‘জনমিতিক তথ্য আমরা মাঠ থেকে যা পেয়েছি, তা সরাসরি আপনাদের সামনে উপস্থাপন করছি। এটি প্রাথমিক প্রতিবেদন।’

তথ্যে আরও বলা হয়, সাক্ষরতার দিক থেকে পুরুষ ৭৬ দশমিক ৫৬ শতাংশ এবং নারী ৭২ দশমিক ৮২ শতাংশ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে আছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ।

আরও উপস্থিত আছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: বাংলাদেশ, শিক্ষা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 2 =

আরও পড়ুন