নারায়ণগঞ্জ থেকে ৫ম দফায় লংগদুতে ফেরত ১৮৯ শ্রমিক

fec-image

করোনার ভয়কে জয় করে একের পর এক ইটভাটার শ্রমিক নারায়ণগঞ্জ থেকে রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলায় ফেরত আসা শুরু করেছে। এনিয়ে ৫ম দফায় আরও ১৮৯ জন ইট ভাটার শ্রমিক লংগদুতে ফেরত আসলো।

সোমবার(১৮মে), নারায়ণগঞ্জ থেকে ৪টি ট্রাক যোগে ১৮৯ জন ইট ভাটার শ্রমিক বিকালে লংগদু উপজেলায় পৌঁছলে খবব পেয়ে পুলিশ তাদের আটক করে। আটককৃত শ্রমিকদের মধ্যে নারী, পুরুষসহ ছোট শিশু ছিলো। এতে উপজেলার কালাপাকুজ্জার ২১ জন, মাইনীমুখের ১১৭ জন, গুলশাখালীর ৪৮ জন, বগাচত্তর ইউনিয়নের ৩ জন রয়েছে। এরা সকেলই স্ব স্ব এলাকার বাসিন্দা।

লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ মোহাম্মদ নুর জানান, নারায়ণগঞ্জ থেকে ফেরত আসা সকল শ্রমিক ও তাদের পরিবার পরিজনকে উপজেলা পরিষদের মাঠে রেখে নাম ঠিকানা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে
লংগদু উপজেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাদেরকে নিজ নিজ ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগামী ১৪দিন কোয়ারেন্টাইন রাখার ব্যাবস্থা করা হয়।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাইনুল আবেদীন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ক্যাথোয়াই প্রু মারমা, লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ মোহাম্মদ নুর, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা শুভাশিষ কর্মকার, প্রকল্প কর্মকর্তা যোবায়ের হোসেন। মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মাকসুদুর রহমান, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আবুল হোসেন ও তিন ইউপি চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জ থেকে গত ৪ মে ৯৪ জন, ৯ মে ৩৩ জন, ১৩ মে ৪২ জন ইট ভাটার শ্রমিক ও ১৪ মে ৯ পোষাক শ্রমিক এবং ১৮ মে ১৮৯ জন ইটভাটার শ্রমিক লংগদুতে ফেরত আসে। এদের মধ্যে প্রথম ধাপে ফেরত আসা শ্রমিকের মধ্যে গুলশাখালীর এলাকার স্বামী ও স্ত্রী দুজনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। বর্তমানে তদেরকে প্রাতিষ্ঠানিক হোম কোয়ারান্টাইন এবং ওই প্রতিষ্ঠানকে লগডাউন করেছে প্রশাসন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − seven =

আরও পড়ুন