পাচারকারীর পেটের মধ্যে পাওয়া গেলো ১৫ পুটলা ইয়াবা

fec-image

টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া হোয়াইক্যং ঢালারমুখ থেকে আসার পথে পেটে করে পাচারের সময় এক মাদক কারবারিকে আটক করে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। পরে হাসপাতালে এক্স-রে করলে মিলে ছোট ছোট ট্যাপে মুড়ানো বেশ কয়েকটি ইয়াবার ফুটলি।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে হোয়াইক্যং ঢালা হয়ে সিএনজিযোগে পাচারের সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নুর মোহাম্মদের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিশেষ অভিযান চালিয়ে হোয়াইক্যং লম্বাবিল ৩নং ওয়ার্ড এলাকায় নুর হোসেনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২২) কে সন্দেহজনক আটক করার পর জিজ্ঞাসাবাদে অস্বীকার করলে পরবর্তীতে স্থানীয় ল্যাবে এক্স-রে পরীক্ষা করলে পেটে ধরা পড়ে ৫০ পিস করে ১৫টি পুটলা। পেটে আরো বেশ কয়েকটি ইয়াবার পুটলা আছে বলে আটক ব্যক্তি স্বীকার করে।

বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নুর মোহাম্মদ জানান, কলা, পাউরুটি এভোল্যাক সিরাপ পান করার দীর্ঘ ছয় ঘন্টা পর বমি করে ১৪টি ও পায়খানার রাস্তা থেকে আরো বেশ কয়েকটি ইয়াবার পুটলা বের হয়। ১৫টি ছোট ছোট ইয়াবার পুটলা উদ্ধার করা হয়েছে এবং অবশিষ্ট ইয়াবা বের করার চেষ্টা চলছে।

তিনি আরো জানান, আটক মাদক কারবারীর চাচাতো ভাই সিএনজি চালক নুর আহমদের সিএনজি করে হ্নীলা আলিখালী থেকে পেটে করে কক্সবাজারের দিকে ইয়াবা পাচারের গোপন তথ্যের ভিত্তিতে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 + eleven =

আরও পড়ুন