পানছড়িতে বাল্যবিয়ের অপরাধে বরের জেল, শ্বশুরের জরিমানা

fec-image

খাগড়াছড়ি গিয়ে বাল্য-বিবাহের কার্যাদি সম্পন্ন করলেও শেষ রক্ষা পেলনা শ্বশুর ও জামাই। বৃহষ্পতিবার (৩১ মার্চ) রাত আনুমানিক ১১টার দিকে খাগড়াছড়ি থেকে বাল্য বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে নববধূ নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে উল্টাছড়ি এলাকায় আটক করে পানছড়ি থানায় খবর দেয় স্থানীয়রা।

জানা যায়, বরের নাম মো. মনির হোসেন (২৯)। সে মাটিরাঙা উপজেলার তাইন্দং মাইজপাড়া গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে। অপর দিকে কনে সালমা আক্তার পানছড়ি উপজেলার উমরপুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের মেয়ে। জন্ম নিবন্ধন অনুযায়ী সালমার বয়স ১৬।

পানছড়ি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিট্টেট ও পানছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবাইয়া আফরোজের আদালতে কন্যার পিতার দুই হাজার টাকা জরিমানা ও বরকে এক মাসের বিনাশ্রম সাজা প্রদান করে জেল হাজতে পাঠায়। পাশাপাশি খাগড়াছড়ি সদরের নিকাহ রেজিস্টার কাজী জাহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে বাল্য বিয়ের কার্যাদি সম্পন্ন করার অপরাধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে এবং প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না মর্মে কনের বাবা মুচলেকা প্রদান করে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবাইয়া আফরোজ ও পানছড়ি থানার ওসি আনচারুল করিম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 2 =

আরও পড়ুন