ফ্রিজ ছাড়াই যেভাবে মাংস সংরক্ষণ করবেন

fec-image

কোরবানি ঈদে মাংস কাটা ও বিতরণ করার পর নিজেদের ভাগের মাংসগুলো কীভাবে সংরক্ষণ করবেন তা নিয়ে অনেকেই চিন্তিত হয়ে পড়েন। সঠিকভাবে সংরক্ষণ করা হলে মাংস সপ্তাহ, মাস এমনকি বছর ধরে খাওয়া যায়। যদিও এখন সবার ঘরেই ফ্রিজ আছে, আর মাংস সংরক্ষণের ক্ষেত্রে ফ্রিজে রাখাটাই সবর প্রথম পছন্দের।

মাংস উচ্চ তাপমাত্রায় জ্বাল দিয়ে সংরক্ষণ করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে ৬ ঘণ্টা পর পর মাংসটি জ্বাল দিতে হবে, না হলে জীবাণু সংক্রমণের ঝুঁকি থাকে। এমনকি মাংস রোদে শুকিয়েও সংরক্ষণ করা যায় দীর্ঘদিন।

রোদে শুকিয়ে যেভাবে সংরক্ষণ করবেন

এজন্য মাংসগুলো মাঝারি আকারে কেটে নিন। তার ভালোভাবে ধুয়ে নিন। মাংসের সঙ্গে কোনো অবস্থাতেই চর্বি রাখা যাবে না। এরপর মাংসের পানি নিংড়ে যথেষ্ট পরিমাণে লবণ ও হলুদ মাখিয়ে নিন। এরপর ডুবো পানিতে সেই মাংস কিছুক্ষণ সেদ্ধ করতে হবে।

মাংস আধা সেদ্ধ হলে সেটা চুলা থেকে নামিয়ে পানি ছেঁকে শিকে গেঁথে রোদে দিয়ে রাখুন। এভাবে মাংস শুকাতে একটানা ৪-৭ দিন সময় লাগবে। বাইরের ধুলোবালি থেকে মাংসগুলোকে বাঁচাতে পাতলা কাপড় পেঁচিয়ে দিতে পারেন।

মাংস একেবারে শুকিয়ে গেলে মুখ বন্ধ ভালো কোনো পাত্রে রাখতে হবে। রান্নার সময় শুকনো এই মাংস হালকা গরম পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখার পর স্বাভাবিক নিয়মে রান্না করুন।

লেবু ও লবণ দিয়ে মাংস সংরক্ষণের পদ্ধতি

এক্ষেত্রে প্রথমে মাংসগুলো মাঝারি আকারে কেটে হালকাভাবে ছেঁচে নেন। এরপর লবণ ও লেবুর রসে ঘণ্টাখানেক ডুবিয়ে রাখতে হবে তাহলে মাংসের ভেতরে সেটা পৌঁছায়। এভাবে মাংস কয়েকদিন পর্যন্ত ভালেঅ রাখা যায়।

মাংস ভেজে যেভাবে সংরক্ষণ করবেন

এজন্যমাংস কেটে পরিষ্কার করে আদা বাটা, রসুন বাটা পেঁয়াজ বাটা দিয়ে মাংসটি কিছুক্ষণ ম্যারিনেট করে রাখতে হবে। এরপর গরম ডুবো তেলে মসলাসহ মাংসগুলো ভেজে নিয়ে তেল ছেঁকে তারপর মাংস সংরক্ষণ করুন।

ডুবো তেলে মাংস সেদ্ধ করলে তা অনেকদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। এরপর একদিন পরপর মাংসগুলো উচ্চতাপে গরম করতে হবে। এভাবে মাংস ১৫-২০ দিন পর্যন্ত ভালো থাকবে। সূত্র: জাগোনিউজ

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কোরবানি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − three =

আরও পড়ুন