বাঘাইছড়িতে সহিংসতার দুই বছরেও ক্ষতিপূরণ পায়নি পরিবারগুলো

fec-image

বাঘাইছড়ি পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন শেষে ফেরার পথে ১১ কিলো নামক স্থানে পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের নির্বিচারে ব্রাশফায়ারে প্রিসাইডিং, পোলিং অফিসার ও ভিডিপি সদস্যসহ ৯ জন নিহত ও ৩২ জন আহত হয়েছিল। আজ ১৮ মার্চ দুই বছর পূর্ণ হলেও নিহত ও আহতদের প্রশাসনের দেওয়া বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি ও পুনর্বাসন এখনো বাস্তবায়িত হয়নি। নিহত ও আহত পরিবারগুলো দুর্বিসহ জীবন যাপন করছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) সকাল সাড়ে দশ ঘটিকার সময় উপজেলা পরিষদের সম্মুখে নিহত ও আহত পরিবারগুলো মানববন্ধন করেন। মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহি অফিসার মো. শরিফুল ইসলাম মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রধান করেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও পার্বত্য বাঙালি নাগরিক পরিষদের সভাপতি আবুল কাইয়ুম ও পার্বত্য বাঙালি নাগরিক পরিষদের পৌর সভাপতি আফসার উদ্দিন।নিহত আট পরিবারের সদস্য বৃন্দ।

বক্তারা বলেন, ঘটনার পরে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনারের প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও নিহত পরিবারবর্গের সাথে মত বিনিময় করেন। মত বিনিময় সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিহত ও আহত পরিবারবর্গের পুনর্বাসনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু আজ দুই বছর পূর্ণ হল এই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করেনি। যারাই এই হত্যাকাণ্ডের সাথে মূল হোতা ছিল তাদেরকে এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি। তাই আমরা ন্যায় বিচার হতে বঞ্চিত হচ্ছি। নিহত পরিবারগুলোকে সরকারি চাকুরির মাধ্যমে পুনর্বাসন করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন করেন নিহতের পরিবার বর্গ এবং প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × 3 =

আরও পড়ুন