বিজিবি’র টেকনাফ ব্যাটালিয়নের পৃথক অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ৩

fec-image

বিজিবি’র টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) কর্তৃক পরিচালিত দুইটি পৃথক অভিযানে ৩ জন আসামীসহ ৭৬,১৫,৮০০ (ছিয়াত্তর লক্ষ পনের হাজার আটশত) টাকা মূল্যমানের ২৫,৩৮৬পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

গেল ৫ সেপ্টেম্বর টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধীনস্থ দমদমিয়া বিওপি’র একটি টহলদল দমদমিয়া চেকপোস্টে নিয়মিত কার্যক্রম পরিচালনা করছিল। আনুমানিক বিকেল সাড়ে ৫টায় টেকনাফ হতে বালুখালীগামী একটি সিএনজি চেকপোস্টের নিকট আসলে তা তল্লাশীর জন্য থামানো হয়। পরবর্তীতে ওই সিএনজি তল্লাশীকালীন তিনজন হিজড়া (৩য় লিঙ্গ) এর আচরণ সন্দেহজনক হওয়ায় তাৎক্ষণিক তাদেরকে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তল্লাশী ও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

একপর্যায়ে তাদের জবানবন্দীর ভিত্তিতে মোঃ করিম (নারী নাম-কারিমা) এর পায়ুপথ হতে ২,১৮৬ পিস, মোঃ ফারুক (নারী নাম-পিংকি) এর পায়ুপথ হতে ২,১০০ পিস এবং মোঃ ইলিয়াস (নারী নাম-রুবিনা) এর পায়ুপথ হতে ১,১০০ পিসসহ সর্বমোট ১৬,১৫,৮০০/- (ষোল লক্ষ পনের হাজার আটশত) টাকা মূল্যমানের ৫,৩৮৬ (পাঁচ হাজার তিনশত ছিয়াশি) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়। আটককৃত আসামীদেরকে জব্দকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটসহ নিয়মিত মামলার মাধ্যমে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করার কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

অপরদিকে, ৫ সেপ্টেম্বর রাতে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধীনস্থ হোয়াইক্যং বিওপি’র দায়িত্বপূর্ণ বালুখালী এলাকায় ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয় হতে পারে বলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে হোয়াইক্যং বিওপি’র একটি বিশেষ টহলদল দ্রুত বর্ণিত এলাকায় গমন করতঃ বালুখালী ব্রীজ ও জঙ্গলের আঁড় নিয়ে কয়েকটি উপদলে বিভক্ত হয়ে গোপনে অবস্থান গ্রহণ করে। আনুমানিক রাত ১টায় হোয়াইক্যং বিওপি হতে ৫০০ মিটার উত্তর-পশ্চিম দিকে এবং টেকনাফ-কক্সবাজার মহাসড়কের বালুখালী ব্রীজ হতে ১০০ গজ পূর্ব দিকে খালের মধ্যে একজন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে একটি ব্যাগ হাতে নিয়ে ঘুরাঘুরি করতে দেখে টহল দলের সন্দেহ হওয়ায় তাকে চ্যালেঞ্জ করে।

বিজিবি’র উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই ওই ব্যক্তি দৌঁড়ে রাতের অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে পার্শ্ববর্তী বালুখালী গ্রামের ভিতরে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে টহলদল বর্ণিত স্থানে তল্লাশী অভিযান পরিচালনা করে ইয়াবা কারবারীর ফেলে যাওয়া ১টি প্লাস্টিকের ব্যাগ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত ব্যাগের ভিতর হতে ৬০,০০,০০০/- (ষাট লক্ষ) টাকা মূল্যমানের ২০,০০০ (বিশ হাজার) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়। ইয়াবা কারবারীকে আটকের নিমিত্তে বর্ণিত এলাকা ও পার্শ্ববর্তী স্থানে পরবর্তী ২.৩০টা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করা হলেও কোন পাচারকারী/তার সহযোগীকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

ওই স্থানে অন্য কোন অসামরিক ব্যক্তিকে পাওয়া যায়নি বিধায় ইয়াবা কারবারীকে শনাক্ত করাও সম্ভব হয়নি। তাকে শনাক্ত করার জন্য অত্র ব্যাটালিয়নের গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এছাড়াও অবৈধ মাদক বহন এবং ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে নিজ দখলে রাখার দায়ে অজ্ঞাত দোষী ব্যক্তির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনী কার্যক্রম গ্রহণের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × five =

আরও পড়ুন