ভোটারদের ভয় দেখাতে কেন্দ্রের পথে ককটেল বিস্ফোরণ

fec-image

খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার রামগড় ও পাতাছড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। তবে পাতাছড়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বটতলা এলাকায় কেন্দ্রে যাওয়ার রাস্তায় ৫-৬টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে কেউ হতাহত হয়নি। ভোট কেন্দ্রগামী ভোটারদের মাঝে আতংক সৃষ্টির জন্য এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে স্থানীয়রা জানায়। খবর পেয়ে আইনশৃংখলা বাহিনী দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে।

এদিকে, নির্ধারিত সময় থেকে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। কনকনে শীত উপেক্ষা করে ভোর থেকেই বেশির ভাগ ভোট কেন্দ্রে ভোটাররা উপস্থিত হন। সকাল থেকেই কেন্দ্রে দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। কয়েকটি কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায়, নিজের পছন্দের প্রার্থীদের ভোট দিতে শীত উপেক্ষা করে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে আছে ভোটাররা। নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেন অনেকেই।

সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে ভোট চলছে বলে সাড়ে ১১টায় সাংবাদিকদের জানান রামগড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী করিমুল হক। আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী শাহ আলম মজুমদারও একই কথা বলেছেন।

ভোট কেন্দ্র ঘুরে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, রামগড় ইউনিয়নে নয়টি ভোটকেন্দ্রের ৩১টি কক্ষ ভোট গ্রহণ চলছে।এই ইউনিয়নে ২ জন চেয়ারম্যান,৯ জন সংরক্ষিত নারী সদস্য(মহিলা মেম্বার)এবং ৩৪জন সাধারণ (পুরুষ মেম্বার) সদস্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এতে৫ হাজার ৭ শ ১৯ জন পুরুষ ৫ হাজার ৩শ ৬০ জন মহিলা ভোটার রয়েছে।

অপরদিকে পাতাছড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও এক পুরুষ সদস্য (মেম্বার) বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়ায় সেখানে সংরক্ষিত নারী সদস্য( মহিলা মেম্বার) ১৩ জন এবং সাধারণ সদস্য (পুরুষ মেম্বার)২৭ জন ভোটযুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।এই ইউনিয়নের ৯টি কেন্দ্রের ২৭টি স্থায়ী ও ২টি অস্থায়ী কক্ষ ভোট গ্রহণের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে।এতে ৫ হাজার ৮৫ জন পুরুষ এবং ৫ হাজার৮৫ জন মহিলা ভোটার রয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার দেবাশীষ দাস জানান, নির্বাচন নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠ করতে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করছে। শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রেখে ভয়ভীতি ও প্রভাবমুক্ত হয়ে ভোট দিচ্ছেন ভোটারগণ। এখনও পর্যন্ত কোথাও কোন বিশৃঙ্খলার ঘটনা ঘটেনি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × four =

আরও পড়ুন