মহানবীর আগমন উপলক্ষে রাঙ্গামাটিতে জশনে জুলুছ: মুসলমানদের অংশ নেওয়ার আহ্বান

fec-image

নবী করিম (স:) এর শুভ আগমন উপলেক্ষ্য আগামী ৮ নভেম্বর শুক্রবার জুম্মার নামাজ পরবর্তী জশনে জুলুছের শোভাযাত্রায় সকল মুসলমানকে শরীক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ গাউছিয়া কমিটি রাঙামাটি জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

বুধবার (৬ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জেলা শহরের একটি ব্যক্তিমালিকানাধীন রেস্টেুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ আহ্বান জানানো হয়।

বক্তারা বলেন, রাসূলে পাক (স:) এ পৃথিবীর বুকে ৫৭০ খ্রিষ্টাব্দের ১১ রবিউল আউয়াল তারিখে মা আমেনার কোলে শুভ আগমন করেন। প্রিয় নবীজি (স:) শুভাগমনে উম্মতে মুহাম্মদী খুশী উদযাপন করে আসছে সগস্র বছর ধরে।

সাহাবায়ে কেরাম, আউলিয়া কেরামের ধারাবাহিকতায় পূর্ণ্যময় সেই কৃষ্টি-সংস্কৃতি এদেশে চালু করেছেন, রাসূলে পাক (স:) এর ৪০তম আওলাদ আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়ব শাহ (রহ:) । তার হাত ধরে বাংলাদেশে ১৯৭৪ সাল থেকে ইসলামী সংস্কৃতির অনন্য নিদর্শন জশনে জুলুছ চালু হয়েছে।

আগামী ৮ নভেম্বর জুম্মার নামাজের পর শহরের রিজার্ভবাজার জামে মসজিদ থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হবে এবং বনরূপা জামে মসজিদে এসে মিলাদ, কিয়াম, মুসলিম উম্মার শান্তির জন্য মোনাজাত এবং তবরুক বিতরণের মধ্য দিয়ে এ শোভাযাত্রার সমাপ্তি ঘোষণা করা হবে বলে বক্তারা জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, অত্র কমিটির রাঙামাটি শাখার আহবায়ক হাজী মুছা মাতব্বর, সদস্য সচিব মুহাম্মদ আবু সৈয়দ, সদস্য হাজী আব্দুল করিম খান, মো. নাছির উদ্দীন, মৌলবী শফিউল আরম আল কাদেরীসহ সংগঠনটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 − seven =

আরও পড়ুন