মাটিরাঙ্গায় ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন ও কেন্দ্র দখলের পরিকল্পনার অভিযোগ বিএনপির

fec-image

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে সাধারণ ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন ও কেন্দ্র দখলের পরিকল্পনার অভিযোগ করেছেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. শাহ জালাল কাজল। নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার নিয়োগের ক্ষেত্রে সরকার দলীয় আদর্শের কর্মকতা ও শিক্ষকদের নিয়োগ দেয়া হয়েছে অভিযোগ করে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. শাহ জালাল কাজল বলেন, ইতিমধ্যে রিটার্নিং অফিসার বরাবর আমরা তাদের প্রত্যাহারের আবেদন করেছি।

শুক্রবার (১২ ফেব্রæয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মাটিরাঙ্গা উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিক সম্মলনে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সভাপিত ও সাবেক সংসদ সদস্য ওয়াদুদ ভুইয়া, খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমএন আফসার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. আব্দুল মালেক মিন্টু, মো. মোশাররফ হোসেন, মাটিরাঙ্গা উপজেলা বিএনপির সভাপতি বাহাদুর খান, সহ-সভাপতি ললিত বিকাশ ত্রিপুরা, সাধারণ সম্পাদক মো. বদিউল আলম, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. শাহ জালাল কাজল, মাটিরাঙ্গা উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জিয়াউপর রহমান ও মাটিরাঙ্গা পৌর বিএনপির সভাপতি মো. বাদশা মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচনের দিন কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা করে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সভাপিত ও সাবেক সংসদ সদস্য ওয়াদুদ ভুইয়া বলেছেন, ভোটের আগের রাতে বিএনপির পোলিং এজেন্ট ও বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়ি-ঘরে হামলার প্রস্তুতি নিয়েছে শাসকদল মনোনীত প্রার্থী মো. শামছুল হক। তারই আংশ হিসেবে বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন থেকে বহিরাগতদের মাটিরাঙ্গা পৌরসভার সীমান্তবর্তী এলাকায় জড়ো করা হচ্ছে। তাছাড়া ইতিমধ্যে বিভিন্ন স্থানে বিএনপির নেতা কর্মীদের শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করারও অভিযোগ করেন তিনি।

২০১৫ সালের পৌর নির্বাচনের দিন ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার পথে ভোটারদের উপর হামলা ও মারধরের অভিযোগ করে ওয়াদুদ ভুইয়া বলেন, এবারের নির্বাচনে তার পুনরাবৃত্তি করার ষড়যন্ত্র করছে শাসকদল। তিনি যেনতেন নয়, একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ, বিএনপির, ভোটারদের
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − 3 =

আরও পড়ুন