মিয়ানমারে সেনা মালিকানার প্রতিষ্ঠানকে মুনাফা প্রদান স্থাগিত করেছে জাপানের কিরিন

fec-image

মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর মালিকানায় থাকা একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানকে মুনাফার টাকা পরিশোধ স্থগিত করেছ জাপানের বেভারেজ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান কিরিন। ১১ নভেম্বর কিরিন হোল্ডিংস কোম্পানি জানায় যে তারা মিয়ানমার ইকনমিক হোল্ডিং লিমিটেডকে (এমইএইচএল) মুনাফা প্রদান বন্ধ করে দিয়েছে।

গত সেপ্টেম্বরে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের প্রকাশিত এক রিপোর্টে বলা হয় যে, সামরিক বাহিনীর সঙ্গে যুক্ত এমইএইচএল-এর তহবিল সরাসরি গণহত্যা ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের কাজে লাগানো হচ্ছে। এমইএইচএল-এর শেয়ারহোল্ডার ডকুমেন্টের ভিত্তিতে ওই প্রতিবেদন তৈরি করে অ্যামনেস্টি। জাস্টিস ফর মিয়ানমার নামে একটি নাগরিক সংগঠন ওই ডকুমেন্ট লিক করে।

কিরিন বলে, মিয়ানমারে আমাদের যৌথ উদ্যোগের ভবিষ্যৎ ব্যবসার ব্যাপারে যথেষ্ট স্বচ্ছতা না থাকায় এই স্থগিতাদেশ দেয়া হয়েছে।

এক মার্কিন কূটনীতিক এমইএইচএল-কে মিয়ানমারের সবচেয়ে প্রভাবশালী ও দুর্নীতিগ্রস্ত সংস্থা হিসেবে অভিহিত করেছিলেন। এই প্রতিষ্ঠানটি অর্থনীতির প্রায় প্রতিটি খাতের সঙ্গে জড়িত। বিয়ার থেকে সিগারেট, খনি থেকে ব্যাংকিং ও পোশাক প্রস্তুত শিল্প রয়েছে এদের। স্থানীয় ও বিদেশী আরো অনেক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগ রয়েছে এমইএইচএলের।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 3 =

আরও পড়ুন