রামগড়ে প্রধানমন্ত্রীর ঘর পেয়ে আনন্দে আত্মহারা ২২ গৃহহীন পরিবার

fec-image

মুজিববর্ষ উপলক্ষে খাগড়াছড়ির রামগড়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ২২টি গৃহহীন পরিবার প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে দেয়া দৃষ্টিনন্দন সেমিপাকা বসত ঘরগুলো পেয়ে আনন্দে আত্মহারা।

শনিবার ( ২৩ জানুয়ারি) ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর আনুষ্ঠানিক হস্তান্তর উদ্বোধনের পরই উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় ২২টি গৃহহীন পরিবারের মাঝে ভূমির দলিল ও ঘরের চাবি প্রদান করা হয়।

গৃহ ও ভূমির দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতখি ছিলেন, খাগড়াছড়ি পাবত্য জেলা পরিদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরি অপু।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মু. মাহমুদ উল্ল্যাহ মারুফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতথি ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব প্রদীপ কারবারি। এতে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার ফারুক, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাসিনা আক্তার, পৌরসভার প্যানেল মেয়র ১ আহসান উল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তফা হোসেন, সাধারণ সম্পাদক কাজী নুরুল আলমসহ বিভিন্ন বিভাগের সরকারি কমকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তি ও সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকতা শেষে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিসহ অন্যন্য কর্মকর্তাগণ রামগড় ইউনিয়নের হাতীরখেদা এলাকায় নির্মিত ঘরগুলো পরিদর্শন করেন।

এসময় নতুন ঘর পাওয়া পরিবারগুলোর মাঝে কম্বলও বিতরণ করা হয়। মাথাগোঁজার ঠাঁই দৃষ্টিনন্দন ঘরগুলো পেয়ে অসহায় পরিবারগুলো আনন্দে আত্মহারা হয়ে যায়।

রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মু. মাহমুদ উল্যাহ মারুফ জানান, ‘আশ্রয়ণের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার’ এ শ্লোগানে উপজেলায় ভূমি ও গৃহহীন মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আবাসন উপহার হিসেবে প্রত্যেক ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ খাস জমি বন্দোবস্ত দিয়ে সেখানে ঘর নির্মাণ করা হয়। উপজেলা প্রশাসন সংশ্লিষ্ট কমিটির তত্ত্বাবধানে ঘরগুলো নির্মাণ করে। প্রতিটি ঘরের বরাদ্দ ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। ২০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ২২ ফুট প্রস্থের প্রতিটি ঘরে রয়েছে দু’টি কক্ষ, একটি রান্নাঘর, টয়লেট ও সামনে খোলা বারান্দাসহ ছোট পরিসরের উঠান।

তিনি বলেন, শনিবার প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালে আনুষ্ঠানিক হস্তান্তর উদ্বোধনের পর পরই এখানকার সুবিধাভোগী ২২টি পরিবারের মাঝে ভূমির দলিলসহ ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 2 =

আরও পড়ুন