শনিবার মহেশখালী উপজেলা বিএনপির কাউন্সিল

fec-image

শনিবার ৭ সেপ্টেম্বর মহেশখালী উপজেলা বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। কিন্তু এই সম্মেলনের মাধ্যমে নেতৃত্ব ও ভবিষ্যৎ নিয়ে নেতা-কর্মীদের আশঙ্কা হরর মুভির ‘তুম্বার’এর মতনই আরাধনায় লিপ্ত হবে ওই কমিটি। যা সংগঠনের জন্য ক্ষতিকর। মহেশখালীতে সংখ্যাগরিষ্ঠ জনপ্রিয়তা থাকা বিএনপি নামক এই দলটির মহেশখালী বিএনপিতে সুনির্দিষ্ট কারণে তৃণমূল বিএনপিতে এই সম্মেলন ঘিরে তৈরি হয়েছে (বাদ পড়ার) ভয়-ভীতি, হতাশা ও আতংকের পরিবেশে।এই সম্মেলনকে ঘিরে তৃণমুল নেতাকর্মী এবং এমনকি শীর্ষ পর্যায়ের অনেকই দিনাতিপাত করছে ‘হরর’ মধ্য দিয়ে।

জানতে চাইলে মহেশখালী উপজেলা বিএনপির একজন গুরুত্বপূর্ণ সিনিয়র নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে এমন মন্তব্য করে বলেন, শুরু থেকেই বর্তমান আহ্বায়কের স্বেচ্ছাচারিতা, গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের বাদ, এককভাবে সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত এবং বর্তমানের সময়-সুযোগের সদ্ব্যবহার করে পারিবারিক বলয় সৃষ্টির উদ্দেশ্যে ব্যক্তিগত চেম্বারের পাশে বর্তমান আহ্বায়কের নেতৃত্বে সম্মেলন মানেই একটি তুম্বার মুভির চিত্রনাট্য চিত্রায়ন।

অন্যদিকে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির মতে, রাজনীতির মাঠে সমালোচনা থাকবে যেহেতু প্রতিপক্ষ আছে। অভিযোগ খন্ডন করে বলেন, আগামী ৭ সেপ্টেম্বরের সম্মেলন হবে দুর্দিনে বিএনপির কান্ডারী তৈরির সফল মিলনমেলা। যে সম্মেলনের জন্য হাজার হাজার নেতা-কর্মী মুখিয়ে আছেন উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে। শহীদ জিয়ার আদর্শে দীক্ষিত ত্যাগী ও প্রকৃত বিএনপি কর্মীদের নিয়ে এই সম্মেলনের মাধ্যমেই সৃষ্টি করা হবে পুরো মহেশখালী উপজেলায় একটি বিএনপি পরিবার।

যেখানে প্রত্যেক কাউন্সিলর তাঁর নিজস্ব মতামত ও অভিমত স্বাধীনভাবে ব্যক্ত করতে পারবেন আগামী নেতৃত্ব সৃষ্টির জন্য। যার দরূন প্রতি ইউনিয়নে পূর্ণাঙ্গ কমিটির সকল সদস্যকেও কাউন্সিলর হিসেবে ডেলিগেট করা হয়েছে। অতীতের সব অভিযোগ দূর করে সুদূর প্রসারী এই সম্মেলনের মাধ্যমে মহেশখালী বিএনপিকে ঢেলে সাজাতে দীর্ঘ দিনের সুদৃঢ় নেতৃত্ব খুঁজে পাবে। নাকি আরেকটি পকেট কমিটির অপেক্ষায় মহেশখালী উপজেলা বিএনপি

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − eighteen =

আরও পড়ুন