শেষ হয়েছে পাহাড়ের মাসব্যাপী দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব

fec-image

শেষ হলো পাহাড়ের বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মাসব্যাপী ধর্মীয় উৎসব দানোত্তম কঠিন চিবরদানোৎসব। ২৪ ঘন্টার মধ্যে চীবর তৈরি করার পর তা ভিক্ষুদের দানের মাধ্যমে কায়িক, বাচনিক ও মানসিক অতিরিক্ত পুণ্য সঞ্চয় হয় বলেই বৌদ্ধ শাস্ত্রে এই দানকে ‘শ্রেষ্ঠ দান’ কিংবা কঠিন চিবর (ভিক্ষুদের পরিধেয় বিশেষ কাপড়) দান বলা হয়।

আষাঢ়ি পূর্ণিমার পর দিন থেকে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের তিন মাসব্যাপী ওয়া বা বর্ষাব্রত (উপোষ) পালন শেষে প্রবরাণা পূর্ণিমার মধ্য দিয়ে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মাঝে আনন্দের বার্তা বয়ে আনে। এর পর শুরু হয় কঠিন চীবর দানোৎসব।

মাসব্যাপী এই ধর্মীয় উৎসবটি সোমবার শেষ হয়েছে। শেষদিনে সকাল থেকে খাগড়াছড়ির বিভিন্ন বিহারে চলে এ উৎসব। জেলার গুইমারা সাসনা বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবরদানোৎসবে প্রধান দায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ১৪ ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারী সিন্দুকছড়ি জোনের উপ অধিনায়ক মেজর তৌহিদ সালাউদ্দিন, ক্যাপ্টেন সামিউল, ক্যাপ্টেন ফয়সাল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ঝর্না ত্রিপুরা, হাফছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চাইথোয়াই চৌধুরী, গুইমারা ইউপি চেয়ারম্যান মেমং মারমা প্রমুখ।

এছাড়াও বিভিন্ন এলাকা থকে আগত ভান্তে ও হাজারও দায়ক দায়িকা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 5 =

আরও পড়ুন