খাগড়াছড়িতে সন্তান ১’শ টাকায় পুলিশে চাকরি পাওয়ায় মায়ের অনুভূতি ব্যক্ত

fec-image

মাত্র ১শ টাকায় সন্তানের পুলিশে চাকুরী হওয়ায় অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে আবেগআপ্লুত হন পানছড়ির দু’ মমতাময়ী মা। বার বার খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবদুল আজিজের জন্য দোয়া প্রার্থনা করছেন আর বলছেন শুধু কৃতজ্ঞতা জানালে ঋণ শোধ হবেনা। এই মহান ব্যক্তিকে আল্লাহ দীর্ঘজীবী করুক সব সময়ে এই দোয়াটাই করে যাব।

এবারে পুলিশে নিয়োগে মাত্র ১শ টাকার ব্যাংক ফি জমা দিয়ে শারীরিক ও লিখিতসহ বিভিন্ন ধাপে ১০ দিনের যাছাই-বাছাই শেষে খাগড়াছড়িতে ১ নারী ও ১২ পুরুষ কনস্টেবলে স্থান পেয়েছে প্রাথমিকভাবে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে সংবাদ সম্মেলন করে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন জেলা পর্যায়ে নিয়োগ কমিটির সভাপতি পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ। উক্ত নিয়োগে জেলার একমাত্র নারী সদস্য পানছড়ির রুমি আক্তার। অন্যজন মো. জাহাঙ্গীর আলম। রুমি উপজেলার কলোনীপাড়া গ্রামের মোহাম্মদ ইব্রাহীম-সুফিয়া আক্তার দম্পত্তি ও জাহাঙ্গীর দমদম হেডম্যানটিলার মো. আবদুল মান্নান-জাহানারা দম্পত্তির সন্তান।

রুমি ২০২০ সালে পানছড়ি সরকারি ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ ও জাহাঙ্গীর উক্ত কলেজে অনার্স ২য় বর্ষে অধ্যয়নরত। দু’জনেই চাকুরী পেয়ে খুব খুশি। তারা জানায়, স্বচ্ছ এবং নিরপেক্ষ একটি নিয়োগ প্রক্রিয়া ছিল বলেই যার যার যোগ্যতা দিয়ে চাকুরী পেয়েছে। পুলিশ সুপারের প্রতি কৃতজ্ঞতার কথা জানান তারা।

খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার জানান, ৪৮৬ জন প্রার্থীর মধ্যে শারীরিক, লিখিত ও মৌখিকসহ ৭ ধাপের বাছাই শেষে ১৩ জনকে চূড়ান্তভাবে নেয়া হয়েছে। মেধা ও যোগ্যতাসম্পন্নরাই এখানে স্থান পেয়েছে। যোগ্যতা সম্পন্নদের তুলে আনতে পেরে আমার খুব ভালো লাগছে এবং মনে আত্মতৃপ্তি পেয়েছি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + 11 =

আরও পড়ুন