সিএইচটি কমিশনের কো চেয়ারম্যান লর্ড এরিক এভাব্যুরি আর নেই

eric-Avebury

স্টাফ রিপোর্টার:

বিতর্কিত সিএইচটি কমিশনের কো চেয়ারম্যান লর্ড এরিক এভাব্যুরি আর নেই। রবিবার লণ্ডনে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ্ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। লর্ড এভাব্যুরি গত একবছর থেকে মরণব্যাধি ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন।

টানা প্রায় ৫০ বছর বৃটেনের উচ্চকক্ষ হাউস অব লর্ডসে প্রতিনিধিত্বকারী লর্ড অ্যাভাবুরি ১৯৬২ সালে লন্ডনের অরপিংটন আসনের আলোচিত উপনির্বাচনের মধ্যে দিয়ে হাউস অব কমন্সের সদস্য নির্বাচিত হন। একই বছর লিবারেল ডেমোক্রাটিক পার্টিতে যোগ দেন। তিনি বিভিন্ন মেয়াদে হাউস অব লর্ডস এবং হাউস অব কমন্সে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সংসদীয় কমিটিতে নেতৃত্ব দেন।

বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী লর্ড এভাব্যুরি কানাডা ও অক্সপোর্ডে পড়াশুনা করেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সংখ্যালঘুদের অধিকার রক্ষায় কাজ করেছেন তিনি। পূর্ব তিমুর, দক্ষিণ সুদান সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক কমিশনের সদস্য ছিলেন তিনি। ২০০৮ সাল থেকে বাংলাদেশের সিএইচটি কমিশনের কো চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। এই দায়িত্ব পালনের অংশ হিসাবে তিনি বেশ কয়েকবার বাংলাদেশে এসেছেন। পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে তার ভূমিকা সেনাবাহিনী, বাঙালী ও বাংলাদেশের অখণ্ডতা বিরোধী বলে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছে। শেষ দিকে তিনি যুদ্ধাপরাধিদের বিচারের বিরুদ্ধে গঠিত আন্তর্জাতিক প্রচার ও লবিং কমিটির প্রধান নিযুক্ত হয়েছিলেন।

এভাব্যুরি বেশ কিছু পুরস্কার অর্জন করেছেন কাজের স্বীকৃতি হিসাবে। এর মধ্যে মানবাধিকার রক্ষায় লাইফটাইম এচিভমেন্টের জন্য ২০০৭ সালে তাকে লন্ডনের বাহাই সম্প্রদায় তাকে পুরস্কৃত করে।২০০৯ সালে তিনি যৌথভাবে সেক্যুলারিস্ট অভ দ্যা ইয়ার পুরস্কার লাভ করেন।২০১০ সালে যুক্তরাজ্যের লেসবিয়ান ও গে ইমিগ্রান্টরা তাকে আরেকটি লাইফ টাইম এওয়ার্ডে ভূষিত করে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: লর্ড এরিক, লর্ড এরিখ এভাব্যুরি, সিএইচটি কমিশন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + 7 =

আরও পড়ুন