adv 728

সীমান্তে অপরাধ দমন ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে মতৈক্য

রামগড়ে বিজিবি-বিএসএফ’র সেক্টর পর্যায়ে বৈঠক সীমান্তে অপরাধ দমন ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে মতৈক্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, রামগড়:

খাগড়াছড়ি ও ভারতের দক্ষিণ ত্রিপুরা সীমান্তে সকল প্রকার অপরাধমূলক তৎপরতা দমন এবং শান্তি ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ও ভারতের সীমান্তরক্ষীবাহিনী বিএসএফ।

বৃহস্পতিবার(১৮ এপ্রিল) রামগড় পৌর ভবনের সন্মেল কক্ষে  দু’দেশের সীমান্তরক্ষীবাহিনীর সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উভয় পক্ষের মধ্যে এ মতৈক্য হয়।

বৈঠক সূত্রে জানাযায়, উচ্চ পর্যায়ের এ বৈঠকে বিজিবির পক্ষ থেকে ত্রিপুরার বিভিন্ন সীমান্তে জিরো পয়েন্টে ভারতের কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণ, ৩৬টি শক্তিশালী পাম্প মেশিনের মাধ্যমে অবৈধভাবে ফেনীনদী থেকে ভারতের পানি তুলে নেয়া, বাংলাদেশে ফেন্সিডিলসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য পাচার প্রভৃতি বিষয় বৈঠকে আলোচনা করা হয়।

বিএসএফের পক্ষ থেকে সাম্প্রতিককালে সীমান্তে অনুপ্রবেশ ও আটকের ঘটনাসহ বেআইনীভাবে পারাপার, গরু চুরি, নারী ও শিশু পাচার প্রভৃতি ইস্যূ উত্থাপন করা হয়।

সূত্র জানান, সীমান্তের জিরো পয়েন্টে ভারতের কাঁটাতারের বেড়া ও পাকা রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ সম্পর্কে বিএসএফের পক্ষ থেকে বলা হয়, দুই দেশের রাষ্ট্রীয় পর্যায়ের অনুমোদনক্রমে এ কাজটি করা হচ্ছে। ফেনী নদী থেকে ভারতের অবৈধভাবে পানি প্রত্যাহারের বিষয়টি দু’দেশের যৌথ নদী কমিশনের(জেআরসি) ব্যাপার বলে তারা ইস্যূটি এড়িয়ে যায়। বেলা ১১টা হতে ৩টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত এ সীমান্ত বৈঠকে  ১৭ সদস্যের বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন গুইমারা সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মো. আব্দুল হাই।

অন্যান্যের মধ্যে লে. কর্নেল মাহমুদুল হক, লে. কর্নেল শহিদুল্লাহ মিরাজুল আলম, লে.কর্নেল মো. তারিকুল হাকিম, লে. কর্নেল মোহাম্মদ হোসাইন সিদ্দিক বিন সাঈদ, মেজর হুমায়ুন কবির, মেজর হামিদুর রহমান প্রমুখ কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

১৫ সদস্যের বিএসএফের প্রতিনিধিত্ব করেন ত্রিপুরার উদয়পুরের ডিআইজি জামিল আহমেদ। অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন, ৬৬ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট শ্রী দীনেশ কুমার, ৫১ বিএসএফের কমান্ড্যান্ট শ্রী রাজীব কুমার, শ্রী আর এস রোহিত প্রমুখ।

সকালে বিএসএফের প্রতিনিধিদল ফেনী নদীর ওপর নির্মাণাধীন মৈত্রী সেতু এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করার পর  সেখানে বিজিবির গুইমারা সেক্টর কমান্ডার তাদের স্বাগত জানান।

বৈঠক শেষে বিজিবির পক্ষ থেকে দেয়া এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, অত্যন্ত আন্তরিক ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে এ সীমান্ত বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven − seven =

আরও পড়ুন