অপহৃত রোহিঙ্গা শিশু ও নারী উদ্ধার, অপহরণকারী চক্রের একজন গ্রেফতার

fec-image

কক্সবাজারের উখিয়া শফিউল্লাহকাটা ১৬নং রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অপহরণ হওয়ার ৭ দিন পর আমিনা খাতুন (২২) নামে এক গৃহীনি ও তার শিশু কন্যাকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১৫। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে অপহরণকারীর এক সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রবিবার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় এক মেইল বার্তায় এ তথ্য জানান র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

উদ্ধার আমিনা খাতুন উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মো. ইসলামের মেয়ে। অন্যদিকে গ্রেফতার মো. রবিউল আলম (২৬) উখিয়া পালংখালী গয়ালমারা গ্রামের মো. সিদ্দিক এর ছেলে।

 এএসপি আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, গত ২ এপ্রিল মো. ইসলাম নামে এক ব্যক্তি আমাদেরকে অভিযোগ করে জানান কয়েকজন অপহরণকারী তার মেয়ে আমিনা খাতুন (২২) তার এক বছরের শিশুকন্যাসহ গত ২৯ মার্চ অপহরণ করে একটি মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করে মুক্তিপন হিসেবে ১ লক্ষ টাকা দাবি করে অন্যথায় তাকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়। এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রামস্থ এলাকায় মো. রবিউল আলমের বসত বাড়িতে অভিযান চালিয়ে অপহৃত আমিনা খাতুনকে উদ্ধার করে এবং র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে অপহরণকারীরা পালিয়ে যাওয়ার সময় মো. রবিউল আলমকে আটক করে। এসময় তার সঙ্গীয় মো. হোছনসহ অজ্ঞাতনামা আরও ২/৩ জন দৌড়ে পালিয়ে যায়।

অপহৃত আমিনা খাতুন জানান, গত ২৯ মার্চ তার ১ বছরের শিশুকন্যা আসমা বিবিকে ডাক্তার দেখানোর জন্য উখিয়া গয়ালমারা এমএসএফ এনজিও হাসপাতালে যাওয়ার পথে সকাল ১০টার সময় কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কের পশ্চিম পার্শ্ব এলাকা থেকে ২-৩ জন অপহরণকারী তাকে জোরপূর্বক একটি সিএনজিতে করে উঠিয়ে একটি অজ্ঞাত স্থানে বন্ধ ঘরে আটকে রাখে এবং মারধর করে।

সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, গ্রেফতারকৃত আসামির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + 11 =

আরও পড়ুন