মাটিরাঙ্গার গোমতি বাজারে ইউপিডিএফের প্রকাশ্য চাদাঁবাজি : বড়নালে ব্যবসায়ীর গরু অপহরণ

 ৬

পার্বত্যনিউজ রিপোর্ট :

মাটিরাঙ্গা উপজেলার গোমতি বাজারে চুক্তিবিরোধী ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইউপিডিএফ কর্তৃক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে প্রকাশ্য চাদাঁবাজি করার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে ব্যবসায়ীসহ জনগণের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। আর এ ক্ষোভ যেকোন সময় বিক্ষোভে রূপ নিতে পারে বলেও জানা গেছে। এর আগে বড়নালে ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদা আদায় ও গরু অপহরণ করে ইউপিডিএফ‘র স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শনিবার (১০ মে ২০১৪) রাত ১০টার দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলায় পার্বত্য শান্তি চুক্তি চুক্তিবিরোধী ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইউপিডিএফ‘র চাঁদা কালেক্টর ইউনিটের প্রধান জেরিন চাকমা‘র নেতৃত্বে ইউপিডিএফ‘র স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা গোমতি বাজারে প্রবেশ করে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে গণহারে চাঁদাবাজি করে। এসময় তারা অন্তত: ৫০টি দোকানে প্রবেশ করে ব্যবসায়ীদের ব্যবহৃত শতাধিক মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। এসময় তারা ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে প্রায় ৫০ হাজার টাকা চাঁদাবাজি করে বলে ব্যবসায়ীরা নিশ্চিত করেছে।

ঘটনার দিনে রাতে খবর পাওয়ার ঘন্টাখানেক পর ২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-বিজিবি‘র নায়েক সুবেদার আবদুর রব এর নেতৃত্বে বিজিবি‘র একটি টহল দল ঘটনাস্থলে গেলেও ততক্ষণে ইউপিডিএফের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা গোমতি বাজার এলাকা ত্যাগ করে। বিজিবি‘র বিলম্ব উপস্থিতিতে জনমনে ক্ষোভ বিরাজ করছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, এসব বিষয়ে বিজিবিকে খবর দেয়া হলেও বিজিবি যথাসময়ে ঘটনাস্থলে যায় না।

এর আগে গত ৮ মে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলার বড়নাল ইউনিয়নের তৈলাফাং রোয়াজা পাড়া থেকে ইউপিডিএফ সন্ত্রাসী জেরিন চাকমার নেতৃত্বে স্থানীয়দের ১৩ টি গরু অপহরণ করা হয়। পরে সন্ত্রাসীদের সাথে নগদ ৩০ হাজার টাকা এবং ২০ হাজার পরবর্তীতে পরিশোধ করা হবে মর্মে আপোষরফা করে গরুগুলো উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, মাটিরাঙ্গার যামিনীপাড়া ২১ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-বিজিবি জোন সদর থেকে মাত্র ১০০-১৫০ গজ দুরত্বে তৈলাফাং রোয়াজা পাড়ার মো: মজল মিয়াসহ ৩/৪ জন স্থানীয় ব্যবসায়ীর ১৩ টি গরু পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে বেঁধে রাখে এবং মোটা অংকের টাকা দাবী করে। পরে ইউপিডিএফ‘র স্থানীয় এজেন্ট মিলন ত্রিপুরার (কার্বারী) মধ্যস্ততায় ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে গরুগুলো ছেড়ে দেয়।

একইদিন সন্ধ্যার দিকে বড়নাল বাজারে তৈয়্যবিয়া মার্কেটে ব্যবসায়ীকে মারধর করে মোটা অংকের চাঁদা আদায় করে জেরিন চাকমার নেতৃত্বে ইউপিডিএফের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, জেরিন চাকমার নেতৃত্বে ধনমিনি ত্রিপুরা, রিয়েল ত্রিপুরা, মতিন কুমার ত্রিপুরা, বিত ত্রিপুরা,  পদলীলা ত্রিপুরা, রিপন ত্রিপুরা, দীঘিনালার বিমল চাকমা, মাটিরাঙ্গার পূর্বখেদাছড়া গ্রামের অংগ্যজু চাকমা, গোমতির বান্দরছড়া গ্রামের খবা রঞ্জন ত্রিপুরা মাটিরাঙ্গা উপজেলার বড়নাল, গোমতি, বেলছড়ি ও আমতলীসহ আশে-পাশের এলাকায় অব্যাহতভাবে চাঁদাবাজি করে যাচ্ছে। গোমতির জালিয়াপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলাম, বান্দছড়া গ্রামের আব্দুল বারেক, তুফান মিয়া মানিক ইউপিডিএফের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের সহযোগীতা করে যাচ্ছে বলেও জানা গেছে।

অব্যাহত চাঁদাবাজির ঘটনায় গোমতি ও বড়নালে ব্যবসায়ী ও স্থানীয়দের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। সচেতনমহল ইউপিডিএফের প্রকাশ্য-অপ্রকাশ্য চাঁদাবাজি বন্ধে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ কামনা করে বলেছে আর এসব ক্ষোভ বিক্ষোভে রূপ নিলে গোমতি ও বড়নালে তাইন্দংয়ের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারে।

 

আরও খবর পড়ুন

রাঙ্গামাটির কাউখালী থেকে ৪টি গ্রেনেড ১টি এলজিসহ ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার

পার্বত্য চট্টগ্রামে র‌্যাব মোতায়নের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটিতে তিন পাহাড়ি সংগঠনের মানববন্ধন

রাঙ্গামাটি সেনা জোনের সহায়তায় কাউখালীতে ধাত্রীবিদ্যা প্রশিক্ষণ শেষে সনদ ও কিটস বিতরণ

মানিকছড়িতে দু’টি তাজা কার্তুজসহ ১ ইউপিডিএফ কর্মী আটক

রামগড়ে অস্ত্র ও গুলিসহ ২ উপজাতীয় সন্ত্রাসী আটক

বাঘাইছড়িতে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দুইজন খুন

দীঘিনালায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে এক ইউপিডিএফকর্মী নিহত : আহত ১

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 + twenty =

আরও পড়ুন