উখিয়ায় বালির বস্তা ফেলে ব্রিজের নিচে বাঁধ, বর্ষায় এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা  

fec-image
বর্ষার ভরা মৌসুমে উখিয়া উপজেলার রাজাপালং গ্রামে পানি চলাচলের সবচেয়ে বৃহত্তর এবং প্রধান ব্রিজে বালির বস্তা ফেলে মাছ ধরার নামে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির অভিযোগ উঠেছে।
বৃহত্তম রাজাপালং দক্ষিণ পুকুরিয়া এলাকা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, রাজাপালং ফাজিল মাদ্রাসা, জামতলি এলাকা, জামতলি এলাকার পাহাড়ের পানি চলাচলের একমাত্র চ্যানেল হচ্ছে উখিয়া- টেকনাফ আরকান সড়কের মধ্যে অবস্থিত রাজাপালং জাদিমুড়ায় মাস্টার শেখ নাসির উদ্দিনের বাড়ির সামনের ব্রিজটি।
জানা গেছে, গত কয়েক মাস ধরে কে বা কারা মাছ ধরার নাম করে টিনের বেড়া এবং বালির বস্তা ফেলে পানির প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে রেখেছে। এর ফলে ব্রিজের উপরের অংশের এলাকার চাষাবাদের উপযুক্ত অনেক ফসলি জমি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ভারী বর্ষণে পানি অতিরিক্তভাবে জমে গিয়ে রাস্তাঘাট এবং মানুষের বসত ভিটা নষ্ট করে ফেলছে।
স্থানীয় কিছু সচেতন মানুষ মনে করছেন, মাছ ধরার নামে কিছু নব্য দখলদার পানি চলাচলের স্বাভাবিক রাস্তা বন্ধ করে সেতুটিকে অকার্যকর করার চেষ্টা চালাচ্ছে। শুরুতেই যদি প্রশাসন এইসব প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিকারী লোকজনের কৃতকর্ম বন্ধ না করে তাহলে ভারী বর্ষায় সমগ্র এলাকা প্লাবিত হয়ে যাবে এবং নষ্ট হবে শত শত একর ফসলি জমি।
এমতাবস্থায়, এলাকার সাধারণ জনগণ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন।
Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উখিয়ায়, বালির বস্তা, ব্রিজের
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × three =

আরও পড়ুন