উখিয়ায় মুজিববর্ষে গৃহহীন পরিবারকে ঘর উপহার দিল পুলিশ

fec-image

মুজিব শতবর্ষে বাংলাদেশের কোনও মানুষ গৃহহীন থাকবে না প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই অঙ্গীকার বাস্তবায়নের সহায়ক হিসেবে তার নির্দেশনায় বাংলাদেশ পুলিশ দেশের ৬৫৯টি থানায় নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের সেবায় স্থাপিত সার্ভিস ডেস্ক ও গৃহহীন পরিবারকে বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়ার জন্য কর্মসূচি গ্রহণ করে। এ কর্মসূচির আওতায় উখিয়াসহ প্রতিটি থানায় একটি করে গৃহহীন পরিবারকে নূন্যতম এক কাঠা জমিসহ একটি বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে।

রবিবার (১০ এপ্রিল) সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এসব গৃহ হস্তান্তর এবং নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্ক উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজারবাগ প্রান্তে বাংলাদেশ পুলিশ অডিটোরিয়ামে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

একই সময়ে উখিয়া থানা পুলিশের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ পুলিশের অফিশিয়াল ফেসবুক পেইজ হতে অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারি পুলিশ সুপার (উখিয়া সার্কেল) শাকিল আহমেদ, উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আহাম্মদ সঞ্জুর মোরশেদ, অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) গাজী সালাউদ্দিন, উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিক আজাদ, উখিয়া কমিউনিটি পুলিশিং এর সাধারণ সম্পাদক শহিদুল্লাহ কায়সার, উখিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রতন কান্তি দে, উখিয়া থানার উপ-পরিদর্শক তোবারক হোসেন, কুমার দাস, মতিউর রহমান মোল্লাসহ আরো অনেকে।

প্রাথমিক পর্যায়ে গৃহহীনদের জন্য নির্মিত ৪০০ বাড়ি হস্তান্তর করা হয়। গৃহহীন পরিবার বাছাইয়ের ক্ষেত্রে বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা নারী, প্রতিবন্ধী ও উপার্জনে অক্ষম, অতিবৃদ্ধ ও পরিবারে উপার্জনক্ষম সদস্য নেই এমন পরিবার অথবা অসহায় মুক্তিযোদ্ধাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ সদর দফতর বলছে, প্রতিটি বাড়ির আয়তন ৪১৫ বর্গফুট এবং এসব বাড়ি নির্মাণে আধুনিক ও পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। নির্মিত বাড়িসমূহে মোট ৩টি কক্ষ রয়েছে। মুজিববর্ষ উদযাপনের জন্য বছরব্যাপী নানা কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছিল বাংলাদেশ পুলিশ। করোনা মহামারির কারণে গৃহীত সে সব পরিকল্পনা পুরোপুরি বাস্তবায়ন না হওয়ায় কিছু অর্থ সাশ্রয় হয়। সে অর্থ দিয়ে গৃহহীনদের জন্য বাড়ি নির্মাণ করে দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবিত ‘সকলের জন্য আবাসনথ কার্যক্রমে শামিল হয় বাংলাদেশ পুলিশ।

মুজিববর্ষের সূচনালগ্ন ২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে সার্ভিস ডেস্ক পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়। এ পর্যন্ত ১ লাখ ৮১ হাজার ৪৭৬ জন নারী, ৩২ হাজার ২৮৬ জন শিশু, ১ লাখ ৩৮ হাজার ৩২৫ জন পুরুষ এবং ১১ হাজার ৮১ জন প্রতিবন্ধী ব্যক্তি অর্থাৎ মোট ৩ লাখ ৬৩ হাজার ১৬৮ জনকে সেবা দেওয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + 12 =

আরও পড়ুন