কক্সবাজারের ৪ আসনেই বিএনপি আ’লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার:

কক্সবাজারের ৪টি আসনেই বিএনপিআওয়ামী লীগ প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। তবে কক্সবাজার-৩ সদর রামু আসনে জাপার জিয়াউদ্দিন বাবলুর নাম ঘোষণা করায় ঝুলে আছে মহাজোটের প্রার্থী মনোনয়ন।

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে বিএনপির সালাহ উদ্দিন আহমদের স্ত্রী হাসিনা আহমদ, আওয়ামী লীগের জাফর আলম, কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনে বিএনপির আলমগীর মাহফুজুল্লাহ ফরিদ ও আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক এর নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনে সাবেক এমপি জেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী ও আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির স্ত্রী শাহীন চৌধুরীর মনোনয়ন দলীয়ভাবে চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে জানাগেছে।

জানা গেছে, রোববার(২৫ নভেম্বর) আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ঘোষণা ও প্রার্থীদের হাতে চূড়ান্ত মনোনয়নপত্র তুলে দেয়া হয়। এর অংশ হিসেবে দিনের প্রথম ভাগেই কক্সবাজার-১ আসনের জন্য জাফর আলমের হাতে চূড়ান্ত মনোনয়নপত্র তুলে দেয়া হয়।

এর পরপরই ঘোষণা দেয়া কক্সবাজার-৪ আসনের প্রার্থী বদির স্ত্রী শাহীন চৌধুরীর হাতে মনোনয়নপত্র দেয়ার কথা। একই সময়ে কক্সবাজার-৩ আসনে জাতীয় পার্টির জিয়া উদ্দীন বাবলুকে প্রার্থী করার খবরটি প্রকাশ হয়।

কক্সবাজার-২ আসনের জন্য আশেক উল্লাহ রফিককে মনোনয়নপত্র দেয়া হয় বিকালের দিকে। তবে এর আগেই ড. আনসারুল করিমকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বলে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবর ছড়িয়ে পড়ে।

কক্সবাজার-৩ সদর-রামু আসনে বিএনপির সাবেক এমপি লুৎফুর রহমান কাজলের প্রার্থীতা চূড়ান্ত করলেও এই আসনে মহাজোট থেকে জাপা নেতা জিয়াউদ্দিন বাবলুকে প্রার্থী ঘোষণা দেয়ায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে।

বিক্ষুব্ধ নেতা কর্মীরা রামু- কক্সবাজারের বিভিন্ন সড়কে কলাগাছ রোপন করে ২৫ নভেম্বর বিক্ষোভ করতে থাকে। তারা এই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে বর্তমান এমপি কমলকে মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানান।

তাদের মতে এই আসন রক্ষার জন্য কমলের কোনো বিকল্প নেই। এই কারণে এ আসনে যে কোনো মুহুর্তে আওয়ামী লীগ তথা মহাজোটের মনোনয়ন পরিবর্তন হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

দলীয় সূত্র মতে, কক্সবাজার-৩ আসন সাইমুম সরওয়ার কমলকে বাদ দিয়ে জাতীয় পার্টির জিয়া উদ্দীন বাবলুকে ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ জোটের স্বার্থে।

কিন্তু শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জিয়া উদ্দীন বাবলু এই আসনে নির্বাচন করতে অনাগ্রহ প্রকাশ করছে বলে জানা গেছে। তাই এই আসনে বাবলুর প্রার্থী হওয়ার বিষয়টিও চূড়ান্ত হয়নি এবং বিষয়টি এখনো ঝুলে রয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

সব শেষে পরিস্থিতি পাল্টে শেষ পর্যন্ত সাইমুম সরওয়ার কমল মনোনয়ন পেয়ে চমক সৃষ্টি করতে পারেন বলেও মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − eight =

আরও পড়ুন