কুতুবদিয়ায় আগেভাগেই ঈদের কেনাকাটা

fec-image

কুতুবদিয়া এবার আগেভাগেই ঈদের কেনাকাটা শুরু হয়েছে। গত দু‘বছর করোনার প্রভাবে বিধি নিষেধ লকডাউনে কোন ঈদেই ছিলনা খুশির আমেজ । এবার দেশজুড়ে করোনার প্রকোপ কম থাকায় আসন্ন ঈদকে সামনে রেখেই খুশিতে ঈদ বাজার করছে সবাই। অগ্রিম জমে উঠেছে উপজেলার প্রধান বাজার বড়ঘোপ ও ধুরুং বাজারে ।

সরেজমিন দেখা যায়, ঈদ কেন্দ্রীক মার্কেটগুলোতে বিশেষ করে গার্মেন্টস, কসমেটিক্স, কাপড়, জুতার দোকানে উপচে পড়া ভীড়। ক্রেতাদের বেশিরভাগই নারী-শিশু।

ধুরুংবাজারে এম.হোছাইন লাইব্রেরী ও কসমেটিক্স এর মোহাম্মদ হোছাইন জানান, এবার আগে ভাগেই কসমেটিক্স প্রসাধনী বেচা-কেনা শুরু হয়েছে। রোযার অর্ধেকটায় ক্রেতারা আসতে শুরু করেছে। বিগত বছরে এত অগ্রিম ছিলনা কেনা-কাটা।

একই বাজারের মালেক শাহ মার্কেটের ‘মনে রেখো’ বস্ত্র বিতানের মো. ইলিয়াস বলেন, ঈদের কেনা-কাটা শুরু হয়েছে। বাচ্চাদের আর তরুণীদের পোশাক বেশি বিক্রি হচ্ছে। বেশির ভাগ ক্রেতাই নারী। দামও ততটা বাড়েনি। স্বাচ্ছদ্যবোধ করছে ক্রেতারা।

স্কুল মার্কেটের কসমেটিক্স ব্যবসায়ী নেজাম স্টোরের মো. নেজাম বলেন, কসমেটিক্স সামগ্রী বিশেষ করে ইমিটেশন সামগ্রী বেশি চলছে। জুতা, প্রসাধনীও বিক্রি কম নয়।

উপজেলা সদর বড়ঘোপ বাজারে আবিদ কালেকশন, সততা স্টোর, একতা স্টোর, ,কহিনুর বস্ত্র বিতান, চমক গ্যালারী প্রভৃতি গার্মেন্টস- কাপড়ের দোকানে প্রচুর ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। দিনভর প্রতিটি দোকানেই ক্রেতাদের কম-বেশি আনাগোনা।

ক্রেতা কহিনুর আক্তার জানান, বাচ্চাদের জামা-কাপড় নিতে এসেছেন। গত দু‘বছর করোনায় ঈদের কেনা-কাটা করতে সুযোগ কম ছিল। তাই এবার আগে ভাগেই কিনে রাখছেন। ছোটদের চেয়ে বড়দের পোশাকের দাম বেশি বলে তিনি মনে করেন।

দেশি-বিদেশি কসমেটিক্স স্বনামধন্য নিউ বাগদাদ ভাই ভাই স্টোরের মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, ঈদের কেনা-কাটা শুরু হয়েছে। তবে প্রতিদিন ক্রেতা একই রকম দেখছিনা। করোনামুক্ত এবারের ঈদে ভালো বেঁচা-বিক্রি হবে বলে তিনি আশা করেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আগেভাগেই, ঈদে, কুতুবদিয়া
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − fifteen =

আরও পড়ুন