চকরিয়ায় নোবেল হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ৩জন গ্রেপ্তার

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় আলোচিত চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ড চট্টগ্রাম এমইএস কলেজ ছাত্র সংসদের সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ও পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা নাছির উদ্দিন নোবেল হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হত্যাকাণ্ডের ৩৬ ঘন্টার পর বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে নিহত নাছির উদ্দিন নোবেলের ছোট ভাই মামুনুর রশিদ বাদী হত্যার ঘটনায় মামলাটি দায়ের করেন। দায়েকৃত মামলার এজাহারে ২০ জনের নাম উল্লেখ করে আরও ১২জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে মামলাটি রুজু করা হয়। এদিকে, মামলা রুজু হওয়ার পরে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত এজাহারভুক্ত তিন আসামিকে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করেছে চকরিয়া থানা পুলিশ।

থানা সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম মহানগরীর হামজারবাগ এলাকায় চকরিয়ায় চাঞ্চল্যকর আলোচিত নোবেল হত্যাকাণ্ডের তিন আসামি অবস্থান নেয়ার সংবাদ পেয়ে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশের একটি টীম অভিযানে নামে। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের নেতৃত্বে ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ এবং নিহতের পরিবারের সহায়তায় চাঞ্চল্যকর নোবেল হত্যা মামলায় এজাহারভুক্ত তিন আসামিকে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হলেন, উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের দিয়ারচর এলাকার মো. ইউনুছের ছেলে নুরুল আলম (১৯), একই ইউনিয়নের বেতুয়ারকূল এলাকার মৃত বশির আহমদের ছেলে রিয়াদুল ইসলাম রিয়াদ (১৯) ও বিএমচর বেতুয়ারকূল এলাকার নাদির হোসেনের ছেলে হেলাল উদ্দিন (৩৮)। হত্যার মামলার এজাহারভুক্ত তিন আসামিকে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করার কারণে এতে হত্যাকাণ্ডের আসল রহস্য উম্মোচন ও এজাহারভুক্ত অপর আসামিদের গ্রেপ্তারের বিষয়টি অনেকটা সহজ হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এদিকে, ছাত্রলীগ নেতা নোবেল হত্যাকাণ্ডে থানায় দায়েরকৃত মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও বিগত ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রতীকে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী খলিল উল্লাহ চৌধুরীকে। খলিল উল্লাহ চৌধুরী চকরিয়া পৌর শহরের প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী ছালেহ আহমদ সওদাগরের ছেলে। উক্ত মামলায় দুই নম্বর আসামি করা হয়েছে পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও বুড়িরপাড়া এলাকার হেলাল উদ্দিনের ছেলে আলা উদ্দিনকে। এছাড়াও মামলার এজাহারে এ দুইজনসহ ২০ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাতামা আরো ১২জনকে আসামি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সকালে পুর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদারপাড়াস্থ জমিতে চাষের কাজ করছিলেন নাছির উদ্দিন নোবেলের কামলারা (শ্রমিক)। ওইসময় প্রতিপক্ষের লোকজন জমিতে এসে কামলাদের মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। খবর দুপুর একটার দিকে আওয়ামী লীগ নেতা নাছির উদ্দিন নোবেল তার লোকজন নিয়ে গেলে ঘটনাস্থলে পূর্ব থেকে প্রতিপক্ষের ২০-২৫ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা দিকবিদিক গুলি বর্ষণ করে। এ সময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নাছির উদ্দিন নোবেলসহ ১১জন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়। ঘটনার পরপর পরিবার সদস্য ও স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাছির উদ্দিন নোবেল প্রাণ হারায়।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, নাছির উদ্দিন হত্যার ঘটনায় তার ছোট ভাই মামুনুর রশিদ বাদী ৩২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। মামলা দায়ের করার পর পুলিশ ইতোমধ্যে তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। মামলায় অপারাপর আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ মাঠে কাজ করছে। গ্রেপ্তার তিনজনকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে ঘটনার আসল রহস্য উন্মোচন করা হবে বলে তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven + 17 =

আরও পড়ুন