চকরিয়ায় মহাসড়কে যাত্রীবাহী বাসে ডাকাতি, গুলিবিদ্ধসহ আহত-৯

fec-image

কক্সবাজার-চট্রগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়ায় যাত্রীবাহী সৌদিয়া চেয়ারকোচ পরিবহনে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। বাস ডাকাতির ঘটনায় গুলিবিদ্ধসহ নয়জন যাত্রী আহত হয়। ডাকাতি সময় বাসের যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইল, নারীদের স্বর্ণলংকার লুট করে নিয়ে যায়। ডাকাতদের গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন আবদুল্লাহ আল মামুন (২৭)সহ দুইজন যাত্রী। আহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

২৭ নভেম্বর (শুক্রবার) ভোর রাত সাড়ে তিনটার দিকে কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ায় ফাঁসিয়াখালী হাঁসেরদীঘি এলাকায় এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ মামুন টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের পানছড়ি গ্রামের এজাহার আহমদের ছেলে। এছাড়াও অপর গুলিবিদ্ধসহ অন্যান্য আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে চলে যাওয়ায় তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে ডাকাতির ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাসের চালক, হেলপার ও সুপারভাইজারকে থানায় আটক রাখা হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক পরিবহন শ্রমিক জানান, গত ১৫দিনে আগেও যাত্রীবাহী মারছা ও এস আলম গাড়ি একইস্থানে পরপর দুইবার ডাকাতি হলেও পুলিশ কোন ধরনের ব্যবস্থা না নেয়ায় ফের উক্ত ডাকাতি সংঘঠিত হয়।

সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে চট্টগ্রামের সিনেমা প্যালেস থেকে ৩৩জন যাত্রী নিয়ে টেকনাফগামী সৌদিয়া পরিবহনের একটি বাস (নং-চট্টমেট্রো-ব-১১-১১২৫) ছাড়ে। বাসটি কর্ণফুলি নতুন ব্রীজ এলাকায় পৌঁছলে ওইখান থেকে লুঙ্গি পরিহিত ব্যাগ নিয়ে ৭ যাত্রী বাসে উঠে।

বাসটি রাত সাড়ে তিনটার দিকে মহাসড়কের চকরিয়ায় ফাঁসিয়াখালী ঢালায় পৌঁছলে গাড়িতে থাকা ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে চালককে জিন্মি করে চালকের আসনে বসে এক ডাকাত গাড়ি চালাতে থাকে। অপরাপর ডাকাতরা চলন্ত বাসে দেশীয় তৈরি কাটা বন্দুক, চাপাতি ও ছোরার ভয় দেখিয়ে বাসের যাত্রীদের কাছ থেকে মোবাইল, নগদ টাকাসহ বিভিন্ন মালামাল কেড়ে নেয়। বাসটি খুটাখালী ইউনিয়নের বহলতলী এলাকায় দাঁড়িয়ে ডাকাতরা গাড়ি থেকে নেমে পালিয়ে যায়।  পরে বাসটির চালক গাড়ি চালিয়ে রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আহতদের ভর্তি করেন। গুলিবিদ্ধ দুইজনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

চট্টগ্রামের বিল্লাল হোসেন জনি নামের এক যাত্রী জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে সেন্টমার্টিন যাওয়ার উদ্যেশ্যে ৬ বন্ধু মিলে চট্টগ্রামের সিনেমা প্যালেস থেকে টেকনাফগামী সৌদিয়া পরিবহনের একটি বাসে উঠে। রাত সাড়ে তিনটার দিকে মহাসড়কের চকরিয়ার ফাঁসিয়াখালী এলাকায় পৌছলে যাত্রীবেশে ডাকাত দল আমাদের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিন্মি করে মোবাইল ও নগদ টাকা কেড়ে নেয়। এসময় বাধা দেয়ায় দুই যাত্রীকে গুলি করে ডাকাত দল। সবাইকে কম বেশি মারধরও করে তারা। এসময় ডাকাত দল নগদ টাকা মোবাইলসহ আনুমানিক ২০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে তিনি দাবি করেছেন।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আশরাফ হোসেন কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, ঘটনাস্থলে ১৫দিন আগেও গাড়ি ডাকাতি বিষয়টি তারা শুনলেও কেউ থানায় অভিযোগ করেনি।

নতুন করে যাত্রীবাহী বাস ডাকাতির ঘটনায় কয়েকজন যাত্রী থানায় এসে লিখিত অভিযোগ করলে তা মামলা হিসেবে নেয়া হয়। এঘটনায় গাড়িটি জব্দ করে চালক, সুপারভাইজার ও হেলপারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: গুলিবিদ্ধ, চকরিয়ায়, ডাকাতি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − 5 =

আরও পড়ুন