জামিন পেলেন চেয়ারম্যান ইউনুছ ভুট্টো 

fec-image
গোপন জালিয়াতি ও অভিযোগকৃত মিথ্যা মামলায় জামিন পেলেন রামুর দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ইউনুছ ভুট্টো।
রোববার (২৪ অক্টোবর) অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণপূর্বক জামিন প্রার্থনা করেন। আদালত তার আবেদন আমলে নিয়ে জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করেন নিয়োজিত আইনজীবী নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুন্যাল আদালত-৩ এর স্পেশাল পিপি একরামুল হুদা।
ইউনুছ ভুট্টো রামুর মিঠাছড়ি সিকদার বাড়ি এলাকার মৃত আবু বক্করের ছেলে।
অ্যাডভোকেট একরামুল হুদা জানান, রামুর মিঠাছড়ি এলাকার একটি বড় শক্তিশালী চক্র ও সরকার বিরোধী রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ইউনুছ ভুট্টোর বিরুদ্ধে অত্যন্ত গোপনে ও সুকৌশলে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। যার এসটি মামলা নং-৮৭১/১৯। মামলা শুনানি শেষে জামিন দেন বিচারক।
তিনি জানান, রামুর মিঠাছড়ি এলাকাটি একটি পক্ষ দীর্ঘ সময় ধরে শোষণ করে আসছিল। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে ইউনুছ ভুট্টো মিঠাছড়ি এলাকাকে তাদের শোষণ ও নির্যাতনের হাত থেকে মুক্ত ও স্বাধীন করেন। তাকে রাজনৈতিকভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচনে বাধাগ্রস্ত করতে অত্যন্ত গোপনে ও সুকৌশলে ওই পক্ষটি ২০১৪ সালে এই মামলাটি দায়ের করেছিলেন, যা নির্বাচনে প্রার্থী হতে বাঁধাগ্রস্ত করতে করেছিলেন বলে মনে করেন তিনি।
জামিন প্রাপ্তির পরে প্রতিক্রিয়ায় চেয়ারম্যান ইউনুছ ভুট্টো বলেন, নির্বাচনের নমিনেশনকালে এই মামলাটি প্রতিপক্ষ সামনে আনেন এবং প্রচার করেন। ২০১৪ সালে গোপনে করা এই মামলাটি আমার নজরে আসলে আজ আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করছি এবং আদালত জামিন মঞ্জুর করেন।
তিনি আরো বলেন, নির্বাচনের আগে গোপন, জালিয়াতি ও মিথ্যা মামলায় আমার জামিন লাভ মিঠাছড়ি বাসীর আরেকটি বিজয় বলে মনে করছি।
এদিকে, আদালত থেকে জামিন লাভ শেষে এলাকাবাসীর ভালবাসায় সিক্ত হলেন এই জনপ্রিয় চেয়ারম্যান।
Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen + nine =

আরও পড়ুন