টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শিশু ধর্ষণ, আটক ২

fec-image

টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৮ বছরের এক রোহিঙ্গা শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভিকটিমকে ক্যাম্পের আভ্যন্তরীণ এমএসএফ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কুতুপালং হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ মে) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় অভিযুক্ত ধর্ষকদেরকে আটক করে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) সদস্যরা। শনিবার (২৮ মে) বিকেলে ১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক (এসপি) মো. তারিকুল ইসলাম প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

২২ নং উনছিপ্রাং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাঝি বলেন, গতকাল শুক্রবার শুক্রবার (২৭ মে) ২২ নং উনছিপ্রাং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি/৩ ব্লকের বাসিন্দা লিয়াকত আলীর শিশুকন্যাকে (৮) একই ক্যাম্পের এ/৩ ব্লকের বাসিন্দা ইমাম হোসেনের ছেলে মো. ইউনুস (৩০) এবং ডি/৩ ব্লকের বাসিন্দা শামসুল আলমের ছেরে নুর বশর (১৪) প্রলোভন দেখিয়ে লম্বা বিল নামক স্থানে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে ভিকটিম ঘরে ফিরে ঘটনাটি মাকে অবহিত করলে ভিকটিমের পরিবার এপিবিএন ক্যাম্পে অভিযোগ করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে উনচিপ্রাং এপিবিএন ক্যাম্পের একটি টিম তাৎক্ষণিক অভিযান পরিচালনা করে। অবশেষে দিনগত রাত ১২টা ৫০ মিনিটের সময় ‘ডি’ ব্লকের কাঁটাতারের বেষ্টনী সংলগ্ন পাহাড়ের ঢালে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় অভিযুক্ত দুই রোহিঙ্গাকে আটক করতে সক্ষম হয়।

১৬ এপিবিএন অধিনায়ক বলেন, অভিযুক্ত দুই ধর্ষককে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: টেকনাফ, রোহিঙ্গা, শিশু ধর্ষণ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 5 =

আরও পড়ুন