পেকুয়ায় জাফর হত্যাকাণ্ডে ১১ দিনেও গ্রেফতার হয়নি কেউ

fec-image

কক্সবাজারের পেকুয়ায় চাঞ্চল্যকর ‘জাফর আলম’ হত্যার ঘটনা ১১ দিন পার হলেও গ্রেফতার হয়নি কোন আসামি। এ নিয়ে চরম হতাশা ও উৎকণ্ঠায় দিন পার করছে তার পরিবার। এমনই দাবি করেন নিহতের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম।

জানা গেছে, গত ২৫ জুলাই আদালতে মামলার হাজিরা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে একদল সন্ত্রাসী জাফর আলমকে প্রকাশ্যে পিটিয় হত্যা করে। জাফর আলম বারবাকিয়া ইউনিয়নের (ইউপি) পাহাড়িয়াখালী এলাকার বাসিন্দা। ঘটনার দুদিন পরে জাফর আলমের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম বাদি হয়ে ২০ জনকে আসামি করে পেকুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। তবে অভিযোগ উঠেছে ওই মামলায় অন্তত ৮ থেকে ১০ জন নিরাপরাধ ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।

বাদী মনোয়ারা বেগম জানায়, আমার স্বামীকে ছনখোলারজুম স্টেশনের সামনে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এখনো একটা আসামিও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ভয় ও উৎকণ্ঠায় দিন পার করছি।

মামলার কয়েকজন আসামি বলেন, আমরা নিরাপরাধ। ঘটনার সাথে বিন্দুমাত্র সংশ্লিষ্টতা নেই। বারবাকিয়ায় ঘটনা হলেও আসামি হয়েছে কয়েকটি ইউনিয়নের লোকজন। মামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এমনকি প্যারালাইজড রোগিকেও আসামি করা হয়েছে। বাদী ও পুলিশকে একটি শক্তিশালী পক্ষ ম্যানেজ করে আমাদের আসামি করেছে।

এবিষয়ে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ফরহাদ আলী বলেন, ওসি মোহাম্মদ ফরহাদ আলী জানিয়েছেন, বাদী যেভাবে এজাহার জমা দিয়েছে সেভাবে মামলা রেকর্ড হয়েছে। তদন্তে ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টতা না পেলে নিরাপরাধ ব্যক্তিদের মামলা থেকে অব্যহতি দেওয়া হবে।
গভীর শতর্কতার সহিত মামলা তদন্ত করা হচ্ছে। পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: হত্যাকাণ্ড
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − thirteen =

আরও পড়ুন