মানিকছড়িতে ‘প্রেরণা’র মানবিকতায় ইংলিশ অলিম্পিয়াড মেডেল নিলামে

fec-image

 “যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু নিন, অন্যকে নেওয়ার সুযোগ দিন, একে অন্যের ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন”- এ স্লোগানে মানিকছড়ি উপজেলায় অসহায়, কর্মহীন গৃহবন্দী মানুষজনের মাঝে মানবিক সহযোগিতায় ত্রাণবাহক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করা ‘প্রেরণা’ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি ইতোমধ্যে জীবণের শ্রেষ্ঠ অর্জন ক্রিকেট খেলার উপহার নিলামে তুলে অর্জিত অর্থ জনকল্যাণে উৎসর্গ করছেন ক্রিকেটপ্রেমী ইমরান হাসান ইমন। তার এই মহতি উদ্যোগে যুব সমাজে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে।

বৈশ্বিক মহামারি নোভেল করোনাভাইরাস যখন বিশ্বমানবে প্রাণঘাতি হয়ে হত্যাযজ্ঞে নেমেছে। আর এই প্রাণঘাতি রোগ প্রতিরোধে মানুষজন গৃহবন্দী হয়ে এখন কর্মহীন। সকলের আয়-রোজগার বন্ধ। চারিদিকে খাদ্যসংকটে হাহাকার। দূর্বিসহ জীবন-যাপনে বাড়ছে অনাহার, দুঃখ ঠিক তখনি মানিকছড়িতে আত্মপ্রকাশ করল ‘প্রেরণা’ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। আর এটির স্বপ্নদষ্টা হলেন, ক্রিকেটপ্রেমী উদীয়মান কিশোর মো. ইমরান হাসান ইমন। ইতোপূর্বে তার অর্জিত জেলা ক্রিকেট লীগের ফাইনাল ম্যাচে অর্জিত ম্যান অব দ্যা ম্যাচ ক্রেস্ট এবং ইংলিশ অলিম্পিয়াড মেডেল ‘করোনা’র প্রাদুর্ভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের কল্যাণার্থে নিলামে তুলেন। দুইটি পুরস্কার নিলামে বিক্রি করে প্রাপ্ত অর্থ বিলিয়ে দিতে প্রতিষ্ঠা করেন ‘প্রেরণা’ নামক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

ইতিপূর্বে ৫০ জন হত-দরিদ্র, অসহায়, কর্মহীন গৃহবন্দী মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দিয়েছেন। রোজার শেষ সপ্তাহে অন্তত আরও ৩০ জন বয়োঃবৃদ্ধ‘মা’দের সন্মানে ইফতার-সামগ্রী বিতরণের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন ‘প্রেরণা’র স্বপ্নদষ্টা ইমরান। এদিকে ১২ মে সকালে বিনা পয়সায় সবজি বিতরণ করেছেন প্রেরণা’র স্বেচ্ছাসেবীরা। উপজেলা সদরস্থ আমতলা যাত্রী ছাউনি চত্বরে সাজোনো স্টলে ৬০-কেজি আলু, ৯৬ কেজি করলা, ৬৫ কেজি বরবটি, ৩৪ কেজি চিকিঙ্গা, ২৫ কেজি মরিচ, ৩০ কেজি টমেটো, ৬২ কেজি শসা, ৯০টি অসহায়দের মাঝে বিতরণ করেছেন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সকাল ৬টা থেকে সাড়ে ৮টা পর্যন্ত চলে এ মানবিক সহায়তা কার্যক্রম। বিনা পয়সায় শতাধিক নারী-পুরুষ চাহিদানুযায়ী সবজি নিতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেন।

অসহায় মানবের স্বপ্নদষ্টা ও প্রেরণা’র আহ্বায়ক মো. ইমরান হাসান ইমন জানান, মানবসেবায় নিজেকে উৎসর্গ করতে জীবণের শ্রেষ্ঠ অর্জন নিলামে তুলে প্রাপ্ত অর্থ বিলিয়ে দিচ্ছি। রোজার শেষপ্রান্তে ৩০জন বয়োঃবৃদ্ধ‘মা’য়ের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণের ইচ্ছা আছে।

ভিন্নধর্মী এ উদ্যোগের প্রশংসা করে উপজেলা দুপ্রক ও প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান বলেন, আমাদের সমাজে অসংখ্য ধনাঢ্য বক্তি থাকলেও দেশের এ ক্লান্তিলগ্নে অসহায়, হত-দরিদ্র মানুষের পাশে এসে দাঁড়ানোর মনমানসিকতা কয়’জনেরই বা আছে। আজ প্রেরণা’র এমন উদ্যোগে যুব সমাজকে ভাবিয়ে তুলছে। সমাজের সম্পদশালী ব্যক্তিদেরও উচিত মহৎ উদ্যোগে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 5 =

আরও পড়ুন