মেগা উন্নয়নে বদলে যাবে মাতারবাড়ি ও ধলঘাটা

fec-image

সাগরে মাছ ধরে বা লবণ চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করত কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ি ও ধলঘাটার অধিকাংশ পরিবার। শিক্ষা ও উন্নয়নে পিছিয়ে ছিল বিচ্ছিন্ন দ্বীপাঞ্চলটি। মাত্র কয়েক বছরের ব্যবধানে পাল্টে গেছে ধলঘাট ও মাতারবাড়ি। কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প বদলে যাবে স্থানীয় বাসিন্দাদের জীবনমান।

মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প, বন্দরসহ আরও কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পে স্থানীয় হাজার লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। ফলে অভাব অনটনের সংসারে এখন সুখের সুর বাজছে। উন্নয়ন প্রকল্প জাতীয় অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখবে।

মাতারবাড়ি গভীর সমুদ্র বন্দর ও কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প ঘিরে রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হচ্ছে। চার লেনের সড়ক, ব্রিজ, রেল সড়ক, গ্যাস টার্মিনালসহ যোগাযোগ ব্যবস্থায় উন্নয়নের কাজ দ্রুত গতিতে চলছে। এখানে স্থানীয় প্রায় ২০ হাজার লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। ফলে দ্বীপের মানুষের জীবনযাত্রায় সমৃদ্ধি আসবে।

মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মাদ উল্লাহ জানান, চলমান মেগা প্রকল্পগুলো সাধারণ মানুষের জীবন যাত্রার মান বদলে যাবে। বিচ্ছিন্ন দ্বীপে এভাবে যে উন্নয়ন হবে তা আগে কেউ ভাবেনি। মাতারবাড়ি ও ধলঘাটার মানুষ অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী হওয়ার পথে।

মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, মাতারবাড়ি ও ধলঘাট নিয়ে উন্নত পরিকল্পনা করছে সরকার। প্রকল্পে স্থানীয়দের অগ্রধিকার দেওয়া হয়েছে। মেগা প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে এলাকাবাসীর ভাগ্য উন্নয়ন হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven + four =

আরও পড়ুন