চকরিয়া-লামা-আলীকদম

রোড কমিটির কার্যালয় থেকে অফিস সচিবের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়া-লামা-আলীকদম রোড কমিটির অফিস সচিব মিন্টু কুমার বড়ুয়া (৪৬) নামের এক ব্যক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। নিহত মিন্টু কুমিল্লা লাকসাম উপজেলার বাখই ইউনিয়নের ধুপচর পাড়া এলাকার মৃত রুহিনী কুমার সিংহের ছেলে। তিনি বর্তমানে চকরিয়া পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের বড়ুয়া পাড়া এলাকার বাসিন্দা বলে সূত্রে জানায়।

মঙ্গলবার (৪আগস্ট) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে চকরিয়া পৌর বাসটার্মিনালস্থ আরাকান সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়ন অন্তর্ভূক্ত চকরিয়া-লামা-আলীকদম রোড কমিটির কার্যালয় থেকে পুলিশ নিহতের লাশটি উদ্ধার করে।

স্থানীয় শ্রমিক ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, নিহত মিন্টু কুমার বড়ুয়া পেশায় একজন শ্রমিক কার্যালয়ের অফিস সচিব। সে চকরিয়া পৌর বাসটার্মিনালস্থ আরাকান সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের অন্তর্ভূক্ত চকরিয়া-লামা-আলীকদম রোড কমিটির কার্যালয়ে চাকরি করে সংসার চালাতো। সংসার জীবনে তার স্ত্রী ও দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বিগত কয়েক মাস পূর্বে নিহত মিন্টু তার এক কন্যা সন্তান বিবাহ দেন।

বর্তমানে চকরিয়া পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের বড়ুয়া পাড়া এলাকায় জায়গা ক্রয় করে বসতঘর নির্মাণ করে বসবাস করছিল। তবে দীর্ঘদিন ধরে তার স্ত্রীর সাথে পারিবারিক সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে বলে সূত্রে জানায়। নিহতের ঘটনার পূর্বেও নাকি তার স্ত্রীর মধ্যে বিভিন্ন পারিবারিক বিষয়ে তর্ক সৃষ্টি হয়।

ঘটনার দিন দুপুরে চকরিয়া-লামা-আলীকদম রোড় কমিটির কার্যালয়ের পেছনে কয়েকজন শিশু বড়শি নিয়ে মাছ ধরতে যায়। ওই সময় রোড কমিটির কার্যালয়ে ছাগলের চিৎকার শুনে মাছ ধরতে যাওয়া শিশুরা জানালা দিয়ে উঁকি দিয়ে কার্যালয়ের ভেতরে অফিস ঘরের চালার বীমের সাথে তার ঝুলতবস্থায় মৃতদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়দের অবহিত করেন। তারা তাৎক্ষণিকভাবে শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি-সম্পাদক ও চকরিয়া থানা পুলিশকে বিষয়টি অবগত করেন। পরে থানার ওসি (তদন্ত) নেতৃত্বে থানার এস আই মিজানসহ ঘটনাস্থল থেকে সঙ্গীয় পুলিশ গিয়ে ঝুলন্তবস্থা থেকে নিহতের লাশটি উদ্ধার করে।

চকরিয়া-লামা-আলীকদম রোড় কমিটির সাধারণ সম্পাদক রফিক উদ্দিন বলেন, চকরিয়া পৌর বাসটার্মিনালস্থ আরাকান সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের অন্তর্ভূক্ত চকরিয়া-লামা-আলীকদম রোড় কমিটির কার্যালয়ে (আমাদের অফিসে) নিহত মিন্টু কুমার বড়ুয়া দীর্ঘ প্রায় ১৩বছর ধরে অত্যান্ত সততা ও নিষ্ঠার সাথে অফিস সচিব এর দায়িত্ব পালন করে আসছে। বিকেলে এক শ্রমিক আমাকে ফোন করে অফিস সচিব মিন্টু গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার বিষয়টি জানালে আমি তাৎক্ষণিকভাবে শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও থানা পুলিশকে অবহিত করি। পরে পুলিশ গিয়ে অফিসের দরজা খুলে নিহতের লাশ ঝুলন্তবস্থা থেকে উদ্ধার করেন। তবে কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তা আমাদের কারো বোধগম্য হচ্ছে না।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান বলেন, পৌর বাসটার্মিনালস্থ চকরিয়া-লামা-আলীকদম রোড় কমিটির কার্যালয় ভেতর থেকে পুলিশ মিন্টু কুমার বড়ুয়া নামের এক ব্যক্তির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে। কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তা ময়নাতদন্ত রির্পোট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত বলা যাচ্ছেনা। লাশটি উদ্ধার করে প্রাথমিক সুরুতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ নিয়ে পরিবারের কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 4 =

আরও পড়ুন