সাকিব-তামিমদের সঙ্গে নান্নুরও ভাগ্য নির্ধারণ আজ

fec-image

বাংলাদেশ জাতীয় দলের দীর্ঘদিনের আলোচনার কেন্দ্রে সাকিব আল হাসান এবং তামিম ইকবাল। দেশীয় ক্রিকেটের দুই বড় তারকা এককালের বন্ধু থেকে এখন দুই বিপরীত মেরুর বাসিন্দা। তাদের বিভাজন নিয়ে আলাপ-আলোচনার ডালপালা মেলেছে বহুদূর পর্যন্ত। দুজনের ক্রিকেটিং ক্যারিয়ার এখন শেষের অঙ্কে। শেষ সময়ে এসে বিসিবির কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি এই দুজন।

তামিম ইকবাল অনেকটা অভিমানের সুরেই অবসর নিয়েছিলেন গত বছরের ৬ জুলাই। এরপর ফিরেও এসেছেন। তবে নানা নাটকীয়তায় বিশ্বকাপ খেলতে পারেননি। এরপরেই জানিয়েছিলেন, নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাবেন বিপিএলের পর। এনিয়ে বৈঠকও করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপনের সঙ্গে।

অন্যদিকে সাকিব আল হাসান বর্তমানে তিন ফরম্যাটেই বাংলাদেশের অধিনায়ক। তবে তিনি সেই পদ থেকে সরে আসতে চান। বিশ্বকাপের আগেই তা নিশ্চিত করে গিয়েছিলেন। দুই ক্রিকেটারের ব্যাপারেই আজ আসতে পারে সিদ্ধান্ত। সোমবার মিরপুর শের-ই বাংলার বিসিবির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে বিসিবির পরিচালকদের বহুল কাঙ্ক্ষিত বোর্ড মিটিং। দুপুর ২টা নাগাদ শুরু হবে এই বোর্ড মিটিং।

সাকিব আল হাসান এবং তামিম ইকবাল ছাড়াও এদিন ভাগ্য নির্ধারণ হতে পারে আরও একজনের। তিনি মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। একসময়ের দেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় এই তারকা এখন আছেন নির্বাচকের ভূমিকায়। এই সভার পরেই জানা যাবে নির্বাচক হিসেবে ইতি ঘটবে নাকি থেকে যাবেন মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর প্যানেল।

এরইমাঝে সেই আভাসও দিয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরি সুজন। পরিচালক বোর্ডের বৈঠকের আগে তিনি বলছিলেন, ‘এটা আমাদের এজেন্ডায় রাখা আছে। বোর্ডে আলোচনার পর যদি বলার মতো কিছু থাকে তখন আপনারা জানতে পারবেন। আমাদের সিলেক্টরদের মেয়াদ কিন্তু শেষ হয়ে গেছে। এরপর তো মেয়াদ আরও বাড়ানো হয়েছিল। বোর্ডে আলোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানা যাবে।’

বিসিবির অন্য যে কোনো সভার চেয়ে এবারের সভা কিছুটা বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে। কেননা বোর্ড সভায় আলোচনার জন্য ঝুলে আছে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। যেমন নির্বাচক প্যানেল, বিশ্বকাপ তদন্ত রিপোর্ট, সাকিব আল হাসানের অধিনায়কত্ব, নতুন কোচ নিয়োগ। এ ছাড়া তামিম ইকবালের জাতীয় দলে ফেরা কিংবা না ফেরার সিদ্ধান্তও হতে পারে এই সভা থেকেই। ক্রিকেটারদের চুক্তির বিষয়টিও থাকবে এই সভায়।

বিশ্বকাপ ব্যর্থতা দেখার জন্য যে কমিটি করেছিল বিসিবি, সেই রিপোর্টও তৈরী করে ফেলেছে তদন্ত কমিটি। সবমিলিয়ে বেশ বড় সিদ্ধান্তই আসতে পারে বিসিবির এই বোর্ড মিটিংয়ে। এর আগে সবশেষ বোর্ড মিটিং অনুষ্ঠিত হয়েছিল ৬ মাস আগে।

বিসিবি সভাপতি থেকে ক্রীড়ামন্ত্রী হওয়ার পর নাজমুল হাসান পাপনের এটিই প্রথম ক্রিকেটীয় বৈঠক। এরইমাঝে দেশের প্রায় সব ফেডারেশনের সঙ্গে বৈঠক শেষ করেছেন ক্রীড়ামন্ত্রী পাপন। আজ তিনি ফিরছেন নিজের ঘরে। দেখা যাক, এখান থেকে কী সিদ্ধান্ত আসে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন