সিএমএইচ হাসপাতলে চিকিৎসা চলমান পার্বত্যমন্ত্রীর 

fec-image

 করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হবার লক্ষ্যে সিএমএইচ হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর বর্তমানে চিকিৎসা চলমান রয়েছে বান্দরবানের পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এর।

আজ ৭ জুন সকালে তাকে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার যোগে সিএমএইচ হাসপাতালের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয় এবং পরবর্তীতে তাকে সিএমএইচ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলমান অবস্থায় রয়েছে। তিনি সম্পূর্ণ মনোবল থেকে সকলের সাথে স্বাচ্ছন্দে কথাবার্তা বলছে। তার সাথে বর্তমানে মন্ত্রীপুত্র রবিন বাহাদুর রয়েছেন এবং পিতার সর্বক্ষণিক সবকিছু তদারকি করছেন।

সূত্র জানিয়েছে, বর্তমানে বান্দরবানের পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর সিএমএইচ হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তার চিকিৎসা চলমান অবস্থায় রয়েছে এবং বিভিন্ন রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও টেস্ট করা হচ্ছে। সকল ডাক্তার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে তার চিকিৎসায় সদা তৎপর রয়েছেন এবং তার সেবায় আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

সকালে তিনি যাত্রার পূর্বে তার নিজস্ব বাসভবনে সাংবাদিক এবং নেতা-কর্মীদের সৌজন্য সাক্ষাতে বলেন আমার সম্পূর্ণ নিজের প্রতি বিশ্বাস আছে আমি খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে আসবো। আমার মনে হচ্ছে তেমন বেশি কিছু হয়নি আমি ভালোই আছি। পরিশেষে তিনি যাতে খুব দ্রুত সুস্থ হয়ে সবার মাঝে ফিরে এসে আবারও বান্দরবানের সকল মানুষের সেবা করে বান্দরবান কে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন তার জন্য ধর্মমত নির্বিশেষে সকলের কাছে দোয়া এবং আশীর্বাদ কামনা করেছেন।

বান্দরবান জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার অংসুই প্রু মারমা জানান স্বাস্থ্য বিভাগ সদা তৎপর রয়েছে এবং আন্তরিকতার সাথে তারা কাজ করছে। তিনি আশা করছেন পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর খুব দ্রুত সুস্থ হয়ে আবার সকলের মাঝে ফিরে আসবেন।

উল্লেখ্য যে দেশের এই করুণ পরিস্থিতিতে তিনি নানাভাবে বান্দরবানের প্রতিটা জেলা উপজেলার সকল মানুষকে ত্রাণ সামগ্রী নগদ অর্থ বিতরণ করে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। শুধু করোনাভাইরাস বলে নয় যেকোনো কিছুতেই তিনি বান্দরবানের একজন অভিভাবক হিসেবে বান্দরবানকে নিজের বুকে আগলে রেখেছেন এবং সব সময় চেষ্টা করেছেন সকল বান্দরবানবাসীর উন্নয়নে কাজ করে যেতে। তাই এই মুহূর্তে সকল বান্দরবানবাসী তার সুস্থতা কামনা করছেন। সকলের আশা তিনি খুব দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: চিকিৎসা, পার্বত্যমন্ত্রীর, সিএমএইচ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − four =

আরও পড়ুন